বগুড়া সংবাদ ডটকম (নন্দীগ্রাম প্রতিনিধি ফিরোজ কামাল ফারুক) : বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলার পেংহাজারকি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনিয়ম-দূর্নীতির অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ওই স্কুললের অভিভাবক সদস্যসহ গ্রামবাসী। গত বুধবার দুপুর ১২টায় দলীয় কার্যালয়ে গ্রামবাসীর পক্ষে পেংহাজারকি উচ্চ বিদ্যালয়ের অভিভাবক সদস্য পরিমল চন্দ্র এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন। সংবাদ সম্মেলনে পেংহাজারকি উচ্চ বিদ্যালয়ের অভিভাবক সদস্য পরিমল চন্দ্র বলেন, উপজেলার বুড়ইল ইউনিয়নের পেংহাজারকি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফরিদুল ইসলাম ওই বিদ্যালয়ের অর্থ আত্মসাৎ, নানা অনিয়ম-দূর্নীতি করেছেন। পেংহাজারকি উচ্চ বিদ্যালয়ে ২০১৩-১৪ অর্থ বছরে সংস্কার কাজের ২ মেট্টিকটন চাল বরাদ্দ পাওয়া যায়। সেই চাল বিদ্যালয়ের কমিটির লোকজনকে না জানিয়ে তাদের স্বাক্ষর জাল করে উত্তেলন করে। সে টাকার কোন কাজ হয়নি বিদ্যালয়ে। তিনি আরো বলেন, অত্র বিদ্যালয়ের নামে এক একর ৫২ শতক পুকুর পত্তনির টাকা আত্মসাৎ ও দীর্ঘদিন ধরে বিদ্যালয়ের কোন হিসাব কমিটির কাছে দেয়নি। এছাড়া শিক্ষার্থীদের খাওয়ানোর ৫০০০ টাকা শিক্ষার্থীদের খাবার না দিয়ে সে টাকা প্রধান শিক্ষক নিজেই আত্মসাৎ করেছে। পেংহাজারকি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কমিটির সভাপতি/সদস্যদের স্বাক্ষর জাল করে মোটাঙ্কের টাকার বিনিময়ে গোপনে অযোগ্য একজনকে নিয়োগ দিয়েছেন। এইসব অনিয়ম-দূর্নীতির অভিযোগে জেলা িিশক্ষা অফিসার, দূর্নীতি দমন কমিশন, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার বরাবরে অভিযোগ করা হয়েছে। তাই সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে প্রধান শিক্ষক ফরিদুল ইসলামের শাস্তির দাবি করছি। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, অভিভাবক সদস্য সুবোধ চন্দ্র, মদন চন্দ্র রায়, গ্রামবাসী রতন বর্মন, সুকুমার সরকার, প্রকাশ চন্দ্র, জগনাথ চন্দ্র প্রমূখ।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন