বগুড়া সংবাদ ডট কম (সারিয়াকান্দি প্রতিনিধি রাহেনূর ইসলাম স্বাধীন) : বগুড়ার পূর্ব দিকে যমুনা নদীর তীরে অবস্থিত সারিয়াকান্দি, সোনাতলা উপজেলার বেশ কিছু এলাকা। এলাকা গুলো যমুনা নদী তীরবর্তী হলেও তাতে বিভিন্ন রকমের ফসলের দিক দিয়ে বিখ্যাত সারিয়াকান্দি ও সোনাতলার বেশ কিছু ইউনিয়ন। মাসকলাই, মুশুর ডাল, মরিচ, কাউন এবং বিভিন্ন ধানসহ আরও হরেক জাতের ফসলের জন্য উপযুক্ত এসব বালুময় এলাকায় ঠিকমতো রাস্তাঘাট না থাকায় এখনো কাচা রাস্তায় চলন উপযোগী এই গরুর গাড়ীর কদর অনেক বেশী। এই এলাকার চাষীদের কাছে যমুনা নদীর চরাঞ্চল থেকে ফসল ঘরে নিয়ে আসার জন্য বিশ্বস্থ বাহন এটি। সারিয়াকান্দির চালুয়াবাড়ী ইউনিয়ন হাটশেরপুর ইউনিয়ন সোনাতলার পাকুল্ল্যা ইউনিয়ন সহ এই এলাকাগুলোতে ফসল আনা নেওয়ার জন্য খুব সহায়ক ভূমিকা পালন করে এই গরুর গাড়ী। তা ছাড়াও গাড়ীর পাশাপাশি গরুর লাঙ্গল দিয়ে হালচাষ করা এবং খামারি হিসাবে গরু পালন করা লাভবান বলেও এখনো তারা এতটাই গরুর গাড়ীর উপর নির্ভরশীল। হাটশেরপুরের সাহানবান্দা এলাকার কৃষক আব্দুল করিম গরুর গাড়ী চালিয়ে নিজের কাজের পাশাপাশি অন্যদের কাজেও সহযোগীতা করে রোজগার করেন । পূর্ব বগুড়ায় পন্য আনা নেওয়ার জন্য একমাত্র বাহন হিসাবে ছিল গরুর গাড়ী। সময়ের পরিবর্তনের কারনে এবং আধুনিক পরিবহন ব্যবস্থার জন্য খুব দূর্লভ এবং বিলুপ্ত প্রায় গরু দিয়ে চালিত গাড়ী।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন