বগুড়া সংবাদ ডট কম (কাহালু প্রতিনিধি এম এ মতিন) :বগুড়ার কাহালুতে দাবীকৃত চাঁদার টাকা না দেওয়ায় মারপিট, ট্রাক ভাংচুর থানায় দ্রুত বিচার আইনে মামলা ১১ জন গ্রেফতার। থানায় দায়েরকৃত মামলা সূত্রে জানা যায়, কাহালু উপজেলার বীরকেদার বাঘোপাড়া গ্রামের ফজলার রহমানের পুত্র আমিনুর রহমানের কাছ থেকে দুপচাঁচিয়া উপজেলার ধাপ সুখানগাড়ী সূর্যসেনা ক্লাবের সদস্যরা ৭ লক্ষ টাকা চাঁদার দাবী করে। দাবীকৃত টাকা দিতে অস্বীকার করলে গত সোমবার দুপুরে কাহালুর বারোমাইল এ কে ফিলিং স্টেশন থেকে মামলার বাদী আমিনুর রহমানের ট্রাক নওগাঁর দিকে যাওয়ার পথে দুপচাঁচিয়া ব্রীজের সামনে আসামীরা ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্যে ট্রাক চালককে মারপিট করে। খবর পেয়ে আমিনুর ও তার ছোট ভাই বীরকেদার ইউ পি সদস্য আনিছুর রহমান ঘটনাস্থলে গেলে আসামীরা তাদেরকে মারপিট করে ট্রাক ছিনিয়ে নিয়ে গিয়ে ধাপ সুখানগাড়ী সূর্যসেনা ক্লাবের সামনে ভাংচুর করে। স্থানীয় লোকজন আমিনুর রহমানকে গুরুতর অবস্থায় কাহালু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপে¬ক্রে ভর্তি করে দেন। বর্তমানে সে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। খবর পেয়ে দুপচাঁচিয়া থানা ও কাহালু থানা পুলিশ ধাপ সুখানগাড়ী সূর্যসেনা ক্লাবের সামনে ট্রাক ভাংচুর করার সময় ১১ জন গ্রেফতার করেন। গ্রেফতারকৃতরা হলেন দুপচাঁচিয়া উপজেলার ধাপ সুখানগাড়ী গ্রামের আফতাব এর পুত্র মিলন (২৫), সিরাজ মন্ডলের পুত্র রব্বানী (২৬), আকবর আলীর পুত্র সজীব (২৫), তোজামের পুত্র চাঁনমিয়া (৩০), মৃতঃ সাহেব আলীর পুত্র শাহাজান (৫৬), হোসেন আলীর পুত্র জাহিদুল ইসলাম(২৮), সাইদুলের পুত্র আবু তালেব (২৬), মৃতঃ সেকেন্দার আলীর পুত্র রফিকুল ইসলাম (৩২), মৃতঃ করানুর পুত্র মানিক (২৫), মৃতঃ রমজানের পুত্র রকি আহম্মেদ (২৮) ও মফিজ উদ্দিনের পুত্র আলমগীর (৩২)। এই ঘটনায় মঙ্গলবার আমিনুর রহমান বাদী হয়ে কাহালু থানায় দ্রুত বিচার আইনে ১১ জনকে এজাহারভূক্ত ও আরোও ১০/১২ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করে মামলা দায়ের করেন। কাহালু থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নুর-এ-আলম সিদ্দিকী এর সাথে কথা বলা হলে তিনি জানান, উক্ত ঘটনায় কাহালু থানায় দ্রুত বিচার আইনে মামলা হয়েছে এবং ১১ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং তাদেরকে জেল-হাজতে পাঠানো হয়েছে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন