বগুড়া সংবাদ ডটকম (শাজাহানপুর প্রতিনিধি জিয়াউর রহমান) : বগুড়ার শাজাহানপুরের বীরগ্রামে ঘনবসতিপূর্ণ এলাকায় কৃষি জমিতে পাওয়ার প্লাণ্ট স্থাপন বন্ধের দাবিতে বুধবার পরিবেশ অধিদপ্তর, বগুড়া জেলা প্রশাসক এবং শাজাহানপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট আবেদন করেছেন স্থানীয় এলাকাবাসি।
আবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, উপজেলার খরনা ইউনিয়নের বীরগ্রামের বাসিন্দারা কৃষির উপর নির্ভরশীল। জমিতে ফসল ফলানোই তাদের একমাত্র পেশা। ফসল ফলিয়ে উপার্জিত অর্থ দিয়ে সংসারের ভরন-পোষণ পরিচালনার পাশাপাশি ছেলে-মেয়েদের লেখাপড়া শিখাচ্ছেন। তারা ওই এলাকায় শান্তিপূর্ণ ভাবে বসবাস করছেন। কিন্তু সম্প্রতি ওই এলাকায় কৃষি জমিতে পাওয়ার প্লাণ্ট স্থাপনের উদ্যোগ নিয়েছে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান। প্লাণ্টটি স্থাপিত হলে একদিকে কৃষি জমি নষ্ট হবে। অপরদিকে বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য স্থাপিত এই প্লাণ্টের শব্দে পরিবেশ দূষিত হবে। যা মানুষের স্বাভাবিত জীবনযাত্রাকে ব্যাহত ও বিঘ্নিত করবে। তাই বীরগ্রামের খেটে খাওয়া কৃষিজীবি মানুষের কল্যাণে পাওয়ার প্লাণ্ট স্থাপন বন্ধের দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা। অপরদিকে পাওয়ার প্লাণ্ট স্থাপনকারী বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ‘কনফিডেন্স পাওয়ার’ এর একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র জানিয়েছে, ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেয়া বর্তমান সরকারের নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি। তাই প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের অগ্রাধিকার প্রকল্পের আওতায় বিদ্যুৎ উৎপাদনের লক্ষ্যে বীরগ্রামে পাওয়ার প্লাণ্ট স্থাপিত হচ্ছে। বিদ্যুৎ মন্ত্রণালয়, স্থানীয় প্রশাসন এবং জনপ্রতিনিধিদের সার্বক্ষণিক সহযোগিতায় স্থান নির্বাচন থেকে শুরু করে প্লাণ্টের যাবতীয় কর্মকান্ড পরিচালিত হচ্ছে। এই প্লাণ্টে অত্যাধুনিক যন্ত্রপাতি ব্যবহার করা হবে। তাই পরিবেশ দূষণের কোন প্রশ্নই ওঠেনা। এলাকাবাসির আবেদন পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে শাজাহানপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. কামরুজ্জামান বলেছেন, একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান সরকারের সাথে চুক্তিবদ্ধ হয়ে কাজটি করছে। তাই উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা ছাড়া এ বিষয়ে পদক্ষেপ নেয়ার সুযোগ নাই।

 

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন