বগুড়া সংবাদ ডটকম (শেরপুর সংবাদদাতা কামাল আহমেদ) : শেরপুরের ডিবি পুলিশের পরিচয় দিয়ে ৫ লাখ টাকা ছিনতাইয়ের অভিযোগে ৫ জনকে আটক করেছে। এই ঘটনায় ব্যবহৃত মাইক্রোবাসটিকে আটক শেরপুর থানা পুলিশ।
প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা গেছে, রবিবার বেলা সাড়ে ১০টার দিকে শেরপুর শহরের একটি ব্যাংক থেকে ৫ লাখ টাকা উত্তোলন করেন শাহজাহানপুর উপজেলার জামালপুর গ্রামের হযরত উল্লার ছেলে আবু জাফর (৬৫)। এ সময় তিনি তার নাতিকে সঙ্গে নিয়ে যাত্রীবাহী বাস যোগে বগুড়া যাচ্ছিলেন। ঢাকা-বগুড়া মহাসড়কের মহিপুর দুগ্ধ খামারের সামনে পৌছলে কালো রংয়ের একটি মাইক্রোবাস (ঢাকা মেট্রো চ ১৫-৮৬৪৩) বাসটিকে থামিয়ে নিজেদের ডিবি পুলিশের সদস্য বলে পরিচয় দিয়ে বাসের ওই দুই যাত্রীকে মাইক্রোবাসে তুলে চোখ বেঁেধ ফেলে। এরপর তাদেরকে গাড়ির মধ্যে বেদম মারপিট করে রায়গঞ্জ উপজেলার ভুইঁয়াগাতী বাসষ্ট্যান্ডের অদূরে ফেলে দেয়। তার পূর্বে তারা রক্ষিত ৫ লাখ টাকা কেড়ে নেয়। পরে এই ঘটনাটি পুলিশ জানতে পেরে ওসি খান মোঃ এরফান ও ইন্সপেক্টর তদন্ত বুলবুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল পুলিশ রোববার দিবাগত রাতে সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় অভিযান চালিয়ে ছিনতাইয়ের কাজে ব্যবহৃত মাইক্রোবাস সহ উল্লাপাড়া উপজেলার উল্লাপাড়া পশ্চিমপাড়া গ্রামের আবদুল হায়দারের ছেলে আব্দুল আজিজ, আজাদ রহমানের ছেলে কাওছার, মৃত আলহাজ্ব জহির প্রামানিকের ছেলে সোহেল রানা, শ্রীখোলা গ্রামের রমজান আলী ওরফে বাবুর ছেলে আব্দুর রাজ্জাক, ভদ্রকোল গ্রামের মৃত সাহেব আলী শেখের ছেলে হান্নান শেখকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। তবে এদের মধ্যে সোহেল রানা ও হান্নান শেখকে সন্দেহজনক হিসেবে আটক করা হয়েছে।
শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ খান মো: এরফান সত্যতা স্বীকার করে বলেন আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

 

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন