বগুড়া সংবাদ ডট কম (এম এ মতিন, কাহালু (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়ার কাহালুর তিনদীঘি শাহ সুলতান ইবতেদায়ী মাদ্রাসার ঝুকিপূর্ণ কক্ষে চলছে শিক্ষার্থীদের পাঠদান। আংতকে আছেন শিক্ষার্থী ও অভিভাবকবৃন্দ। কাহালুর তিনদীঘি শাহ সুলতান ইবতেদায়ী মাদ্রাসাটি ১৯৭৫ সালে ৫টি মাটির কক্ষ দ্বারা স্থাপন করা হয়। বর্তমানে মাদ্রাসাটিতে ১’শ ১৫ জন ছাত্র/ছাত্রী ও ৪ জন শিক্ষক রয়েছেন। সরেজমিনে বুধবার মাদ্রাসাটিতে গিয়ে দেখা যায়, মাদ্রাসাটি স্থাপনের পর থেকে অদ্যবধি মাটির কক্ষ থাকায় শ্রেণীকক্ষের অধিকাংশ দেয়ালে বড় বড় ফাটল ধরেছে। শ্রেণী কক্ষের ফাটল দেয়ালে বাঁশের খুটি দিয়ে ঢোকা দেওয়া হয়েছে। যে কোন মহুর্তে মাটির দেয়াল ধসে পড়ে বড় ধরনের দূর্ঘটনা ঘটতে পারে। মাদ্রসার ৫ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী আফরিন, জোবায়েত হাসান, ৪র্থ শ্রেনীর শিক্ষার্থী আল-আমিন, ৩য় শ্রেণীর শিক্ষার্থী আছিয়া খাতুন ও তিথি মনি সহ অনেকে জানান, ঝুকিপূর্ণ কক্ষে তাদের পড়াশোনা করতে খুব ভয় লাগে। অত্র মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক আব্দুল বাছেদ জানান, ঝুকিপূর্ণ কক্ষের ব্যাপারে আমি উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি তারপরও কোন ব্যবস্থা হয়নি। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার শফিকুল ইসলাম এর সাথে কথা বলা হলে তিনি বলেন, মাদ্রাসার ঝুকিপূর্ণ কক্ষে শিক্ষার্থীদের পাঠদান
চলছে বিষয়টি আমি দেখবো।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন