বগুড়া সংবাদ ডট কম (ধুনট প্রতিনিধি ইমরান হোসেন ইমন) : বগুড়ার ধুনট উপজেলায় এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষনের অভিযোগে মনিরুজ্জামান মুক্তা (২৫) নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার দুপুরে নিমগাছী ইউনিয়নের ঝিনাই গ্রাম থেকে ধর্ষক ওই যুবককে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত যুবক ওই গ্রামের মাসুম মিয়ার ছেলে।
থানায় দায়েরকৃত মামলা ও স্থানীয়সূত্রে জানাগেছে, নিমগাছী ইউনিয়নের ছোট চাপড়া গ্রামের জনৈক এক ব্যক্তির মেয়ে ঝিনাই ফাজিল মাদ্রাসার ৮ম শ্রেণীর ছাত্রী। মাদ্রাসায় যাওয়া-আসার পথে ঝিনাই গ্রামের মাসুম মিয়ার ছেলে মনিরুজ্জামান মুক্তা ওই ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে প্রায়ই উত্যাক্ত করে আসছিল। কিন্তু ওই ছাত্রী রাজি না হওয়ায় মনিরুজ্জামান ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে। গত ২৩ জানুয়ারী রাত ১১টায় ওই ছাত্রীর শয়ন ঘরে ঢুকে তাকে জোড়পূর্বক ধর্ষন করতে থাকে মনিরুজ্জামান। এসময় তার চিৎকারে পরিবারের লোকজন এগিয়ে আসলে ধর্ষক মনিরুজ্জামান পালিয়ে যায়। পরে লোকলজ্বার ভয়ে এবং ধর্ষকের হুমকিতে ওই ছাত্রীকে গোপনে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয় তার পরিবার। কিন্তু ঘটনাটি জানাজানি হলে স্থানীয়দের সহযোগিতায় রবিবার রাতে ওই ছাত্রীর ভাই বাদী হয়ে ধর্ষক মনিরুজ্জামানকে আসামী করে থানায় মামলা দায়ের করেন।
ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইসমাইল হোসেন বলেন, মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষনের অভিযোগে থানায় মামলা দায়েরের পর ধর্ষক যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং ধর্ষিতা ছাত্রীর ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য বগুড়ায় পাঠানো হয়েছে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন