bograsangbad_Logoবগুড়া সংবাদ ডট কম (নন্দীগ্রাম প্রতিনিধি মো: ফিরোজ কামাল ফারুক) :বগুড়ার নন্দীগ্রাম থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে শিশুকে নদীতে ফেলে হত্যা মামলার প্রধান আসামী নূরানী খাতুনকে (১৬) গ্রেপ্তার করেছে। গত রোববার দুপুরে থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুর রাজ্জাকের নেতৃত্বে এসআই ইনামুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে নওগাঁ জেলার আত্রাই উপজেলার শুকনা দিঘীরপাড় গ্রাম থেকে নূরানী খাতুনকে গ্রেপ্তার করা হয়। সে নন্দীগ্রাম উপজেলার কৃষ্ণপুর গ্রামের শামীম হোসেনের মেয়ে।
উল্লেখ্য, গত শুক্রবার (১৯ আগষ্ট) সন্ধ্যায় শিশুকন্যা জুঁই খাতুন ও কুলসুম খাতুন বাড়ির কাছে নাগর নদীর তীরে খেলা করছিল। এসময় সেখানে থাকা প্রতিবেশি নূরানী খাতুন শিশু দুটিকে নদীতে ফেলে দিয়ে পালিয়ে যায়। বিষয়টি এলাকাবাসী টের পেয়ে আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে নদী থেকে কুলসুমকে জীবিত উদ্ধার করতে পারলেও জুঁইকে তারা উদ্ধার করতে পারেনি। পরে রাত ১০টার দিকে নদী থেকে শিশু জুঁইয়ের লাশ উদ্ধার করা হয়। এঘটনায় নিহতের চাচা জাহাঙ্গীর আলম বাদী হয়ে নূরানী খাতুন (১৫) এর বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন। তবে হত্যাকান্ডের প্রকৃত কারণ নিশ্চিত হওয়া যায়নি। থানার এসআই ইনামুল ইসলাম গ্রেপ্তারের বিষয়টি সতত্যা নিশ্চিত করেছেন।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন