বগুড়া সংবাদ ডট কম (আবু রায়হান, দুপচাঁচিয়া প্রতিনিধিঃ দুপচাঁচিয়ায় বগুড়া-নওগাঁ সড়কে পৃথক দু’টি সড়ক দুর্ঘটনায় ২জন নিহত হয়েছে। নিহতরা হলেন বগুড়া পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির লাইন পরিদর্শক কাহালুর মুরইল মাষ্টারপাড়ার মৃত যোগেশ চন্দ্র সরকারের ছেলে সুশান্ত কুমার সরকার(৪০) ও অপরূপা পরিবহনের হেলপার শেরপুর উপজেলার চান্দাইকোণার রবোজা গ্রামের মাজেদ আলী প্রামানিকের ছেলে সুমন প্রামানিক(২৭)।

প্রত্যক্ষদর্শী ও থানা সূত্রে জানা যায়, গত শনিবার বিকেল ৫টায় বগুড়া-নওগাঁ সড়কের বাজারদীঘি এলাকায় সড়কের গাছ কাটার সময় সুশান্ত মোটরসাইকেল যোগে বগুড়া যাচ্ছিলেন। হঠাৎ করেই কর্তনকৃত গাছটি তার মাথার উপরে পড়লে তিনি গুরতর আহত হন। স্থানীয় লোকজন দ্রুত তাকে দুপচাঁচিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। এ ব্যাপারে নিহতের ভাই শীতল কুমার বাদী হয়ে ২জনকে আসামী করে দুপচাঁচিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

অপরদিকে গতকাল রোববার সকালে বগুড়া-নওগাঁ সড়কের দুপচাঁচিয়ার তিষীগাড়ী নামক স্থানে নওগাঁ থেকে কিশোরগঞ্জগামী অপরূপা পরিবহন নামের একটি যাত্রীবাহী কোচ(ঢাকা-মেট্রো-ব-১৪-৭৬২৮) একটি বিপরীতগামী মোটরসাইকেলকে বাঁচাতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের পাশের একটি তালগাছের সঙ্গে স্বজোরে ধাক্কা লাগলে কোচের হেলপার সুমন প্রামানিকের দেহ থেকে মাথা বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এ ঘটনায় মোটরসাইকেল চালক আব্দুল মজিদ ও তার পিতা দেলোয়ার হোসেন সহ বাসের ৬জন যাত্রী আহত হন। আহতদের দুপচাঁচিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করানো হয়েছে।

দুপচাঁচিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মিজানুর রহমান পৃথক দু’টি সড়ক দুর্ঘটনায় ২জন নিহতের কথা নিশ্চিত করে জানান, নিহত সুশান্তের পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন