বগুড়া সংবাদ ডট কম : বগুড়া শিবগঞ্জের হাফিজুর রহমান ওরফে হেফজুল হত্যা মামলায় গ্রেফতারকৃত তার স্ত্রী পারুল বেগমকে পুনরায় রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদের মাধ্যমে হত্যার প্রকৃত আসামীদের গ্রেফতার করার দাবী জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে। শনিবার দুপুরে বগুড়া প্রেসক্লাবে হেফজুলের বড় ভাই হত্যা মামলার বাদী মোঃ মনিরুজ্জামান এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, গত ২৬.০৫.২০১৮ তারিখে তার ভাই নিখোঁজ হয়। নিখোঁজের দুইদিন পর বাড়ীর পার্শ্বে দেবদারু বাগানে হেফজুলের লাশ পাওয়া যায়। দাফন-কাফন শেষে তিনি বাদী হয়ে শিবগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার হেফজুলের স্ত্রী পারুল বেগমের নাম উল্লেখ থাকলেও পুলিশ তাদের কথায় কর্ণপাত না করে জনৈক নয়ন, সাজু ও সবুজের নাম উল্লেখ করে মামলা দেয়। পুলিশ উল্লেখিত আসামীদের গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করে।তিনি জানান, নিহত হেফজুলের স্ত্রী পারুল বেগমের কোন এক পুলিশ অফিসারের সাথে পরকীয়ার সম্পর্ক ছিল। বিষয়টি মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তাকে জানানোর পরেও তিনি বিষয়টি গুরুত্ব দেননাই। একপর্যায়ে মামলার বাদী পুরা বিষয়টি উল্লেখ করে গত ৩০.০৬.১৮ তারিখে পুলিশ সুপার বরারব লিখিত অভিযোগ দাখিল করে। অভিযোগের প্রায় সাড়ে ৩ মাস পর পুলিশ পারুলকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠায়।মনিরুজ্জামান লিখিত বক্তব্যে জানান, আমার দৃর্ঢ বিশ্বাস হেফজুল হত্যার পেছনে ওই পুলিশ কর্মকর্তার প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ ইন্ধন রয়েছে। তাদের পরকীয়া সম্পর্ককে পাকাপোক্ত করত তাদের পরিকল্পনায় হেফজুল খুন হয়েছে। তিনি পরিবার ও মামলার স্বাক্ষীদের নিরাপত্তা বিধানে পুলিশের উদ্ধোতন কতৃপক্ষের নিকট দাবী জানান।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন