বগুড়া সংবাদ ডট কম (এইচ আলিম, বগুড়া) বগুড়া প্রেসক্লাবের সদস্যদের অংশগ্রহণে দিনব্যাপি জমজমাটভাবে বার্ষিক ক্রিকেট টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রেসক্লাবের সদস্যরা উৎসব মুখর হয়ে খেলায় অংশ গ্রহণ করেন। টুর্নামেন্টে যমুনা একাদশ ৯ উইকেট পদ্মা একাদশকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকাল ৯ টায় বগুড়া শহরের শহীদ চাঁন্দু স্টেডিয়ামে প্রেসক্লাব সদস্যবৃন্দ পদ্মা, বাঙালি, মেঘনা ও যমুনা একাদশের হয়ে মাঠে নামেন। প্রথম খেলায় পদ্মা একাদশ ও ২য় খেলায় যমুনা একাদশ বিজয়ী হয়ে তারা ফাইনালে মুখোমুখি হয়। ফাইনাল খেলায় পদ্মা একাদশ শাহনেওয়াজ শাওন এর ৪১, মাছুদুর রহমান রানা ১১ রানে ৬৪ রানের টার্গেট দেয় যমুনা একাদশকে। ব্যাট করতে নেমে সাখাওয়াত হোসাইন জনি ৩৬ ও আমিনুল ইসলাম মুক্তা ১৭ রানের ঝড়ো ইনিংসে এক উইকেট হারিয়ে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় যমুনা একাদশ। শোভা এডভান্সড টেকনোলজিস লিমিটেড’র সুমো ডিজিটাল স্কেল এর সহযোগিতায় খেলা শেষে পুরস্কার বিতরণ করেন প্রধান অতিথি বগুড়া জেলা প্রশাসক ফয়েজ আহাম্মদ।

ক্লাবের সভাপতি প্রদীপ ভট্টাচার্য শংকরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভুঞা বিপিএম, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মাসুদুর রহমান মিলন, বগুড়া প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল আলম নয়ন। ক্লাবের সহ-সভাপতি আব্দুস সালাম বাবু’র সঞ্চালনায় এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ক্রীড়া উপকমিটির আহবায়ক এইচ আলিম। এসময় বগুড়া সদর থানার ওসি এসএম বদিউজ্জামান, ষ্টেডিয়ামের ভেন্যু ম্যানেজার জামিলুর রহমান জামিল, ক্রীড়া উপ কমিটির সদস্য তোফাজ্জল হোসেন, সাজ্জাদ পল্লবসহ প্রেসক্লাবের সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। খেলায় ম্যান অব দ্যা ম্যাচ ও ম্যান অব দি ফাইনাল পুরস্কার পেয়েছেন যমুনা একাদশের সাখাওয়াত হোসাইন জনি। এর আগে বাঙালি একাদশ প্রথম খেলায় মুখোমুখি হয় বাঙালি ও পদ্মা একাদশ। খেলায় বাঙালি একাদশ প্রথমে ব্যাট করে শফিকুল ইসলাম ১২, আব্দুস সালাম বাবু ১১, শফিকুল ইসলাম শফিক ১১ রানে ৬১ রান সংগ্রহ করে। জবাবে পদ্মা একাদশ ৪ উইকেট হারিয়ে জয়সূচক ৬৫ রান করেন। দলের পক্ষে ম্যান অব দ্যা ম্যাচ মোমিন জিলু ১৯, সাইফুল ইসলাম ১৭ রান করেন। দিনের দ্বিতীয় খেলায় মেঘনা একাদশ ব্যাটিং করে ৫৭ রান সংগ্রহ করে। দলের পক্ষে সাগর কুমার রায় ১৮, মমিনুর রশীদ সাইন ২২, এইচ আলিম ১২ রান করে। জবাবে সাখাওয়াত হোসেন জনির ৩৮ রানের উপর ভর করে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায়।

 

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন