বগুড়া সংবাদ ডট কম (নামুজা প্রতিনিধি আনোয়ার হোসেন) : বগুড়ার নামুজা-বুড়িগঞ্জ ও পিরবেসহ আশ পাশে এলাকায় যত্রতত্র ভাবে গড়ে উঠেছে অবৈধ ওয়েলডিং কারখানা। এসব কারখানায় দিন ও রাতের কর্মতৎপরতায় ভোগান্তির শিকার হচ্ছে পদচারি। শব্দ দূষণ ও তীব্র আলোক রশ্মির কারণে চোখের এবং স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে রয়েছে কোমলমতি শিক্ষার্থীসহ সকল শ্রেণির মানুষ। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নজরদারি না থাকায় সড়কের পার্শ্বে যত্রতত্র এসব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে বলে মন্তব্য করেছেন এলাকার সচেতন মহল। প্রস্তাবিত নামুজা থানার নামুজা, বুড়িগঞ্জ, পিরব ও পাইকড় ৪টি ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় গেলে ভুক্তভোগীরা এসব অভিযোগে জানায়, প্রতিটি রাস্তার পাশে ছোট বড় প্রায় নতুন-পুরাতুন ৩০টি বন্দন ও হাট বাজারে শতাধিক ওয়েলডিং কারখানা গড়ে উঠেছে। এসব কারখানায়, গ্রীলের দরজা, জানালা, আলমারি, বাক্সসহ বিভিন্ন লোহার আসবাবপত্র তৈরি করে। রাস্তার দু’পাশে দিনে এবং রাতে সমান তালে চলছে তাদের মহাকর্ম। এতে পথচারিরসহ নানা বাহনে চলাচলরতদের স্বাভাবিক চলাচলে বাধাগ্রস্থ হচ্ছে। প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীরা নিজেদের নিরাপত্তায় প্রতিরোধ মূলক ব্যবস্থা নিলেও এরজন্য নিরাপদ নয় পথচারিরা। স্থানীয়রা এসব ওয়েলডিং কারখানা আবাসিক ও বানিজ্যিক এলাকা থেকে অপসারণ করে অন্যত্র নির্ধারিত স্থানে নেবার দাবী তোলেন। অনুসন্ধানে জানা গেছে, ওয়েলডিং কারখানা করার জন্য যে সব শর্ত প্রয়োজন তার একটিও মেনে এসব কারখানা করা হয়নি। আবাসিক ও বানিজ্যিক এলাকায় এসব কারখানা হওয়ায় ছাত্র/ছাত্রীরা চরম স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে পরেছে। এসব কারখানার ঝালাইয়ের তীব্র আলোক রশ্মির কারণে চোখের মারকত্মক ক্ষতিসহ স্বাস্থ্য ঝুঁকি রয়েছে। কোন অবস্থাতেই জনগুরুত্বপর্ন এলাকায় এসব প্রতিষ্ঠান হওয়া উচিত নয়। এসব কারখানায় সংশ্লিষ্ট কর্তৃক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেন সচেতন মহল।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন