বগুড়া সংবাদ ডট কম (দুপচাঁচিয়া থেকে আবু রায়হান) : বগুড়া জেলার পশ্চিমে দুপচাঁচিয়া আদমদিঘী এলাকা যা সংসদীয় আসনে বগুড়া ৩ আসন হিসাবে পরিচিত। জাতীয় সংসদ নির্বাচন কে কেন্দ্র করে এ এলাকায় প্রার্থীরা প্রচার প্রচারনার শেষ সময়ে ব্যস্ত সময় পার করছে। উত্তর জনপদের শস্যভান্ডার হিসাবে পরিচিত দুপচাঁচিয়া উপজেলা চাল উৎপাদনে বিক্ষ্যাত। এ উপজেলা ২ পৌরসভা ৬ ইউনিয়ন পরিষদ নিয়ে গঠিত। পাশ্ববর্তী আদমদিঘী উপজেলা ৬ ইউনিয়ন পরিষদ ও একটি পৌরসভা যার পশ্চিমে রয়েছে সান্তাহার রেলওয়ে জংশন। সংসদীয় গনতন্ত্রে এ আসনটি ছিল সব সময় বিএনপির দখলে, সর্বশেষ ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারী বিএনপি নির্বাচন বর্জন করলে এ আসনটি বিনা ভোটে চলে যায় জাত্বীয় পাটির দখলে। আসন্ন ৩০ ডিসেম্বর একাদশ সংসদ নির্বাচন কে কেন্দ্র করে এ এলাকার ৮ জন প্রার্থী শেষ মহূর্তে ব্যস্ত সময় পার করছে। এলাকার বিভিন্ন রাস্তাঘাট হাটবাজার সহ বিভিন্ন বন্দরে প্রার্থীরা মোটর সাইকেল শোভা যাত্রা ও সভা সমাবেশ করছে।দিনে রাতে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেরাচ্ছে প্রার্থীরা। এমনকি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রার্থীরা প্রচার প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছে। এর মধ্যই প্রার্থীরা এলাকার মসজিদ মন্দির সহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ব্যস্ত সময় পার করছে।। সেই সাথে বিভিন্ন জায়গায় শেষ মহূর্তে নিজ নিজ প্রতীক নিয়ে গন সংযোগ করছে,সেই সাথে এলাকার অন্নয়নের জন্য দিয়ে যাচ্ছে নানান প্রতিস্থুতি। এ এলাকায় পঞ্চম জাত্বীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী আব্দুল মজিদ তালুকদার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়। ১৯৯৬ সালের ১৫ ফেব্রয়ারী ৬ষ্ট জাত্বীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মেজর অবঃ গোলাম মওলা সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়। একই বছরের ১২ জুন সপ্তম জাত্বীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী আব্দুল মজিদ তালুকদার ২য় বারের মত সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়। ২০০১ সালের অষ্টম ও ২০০৮ সালের নবম জাত্বীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি নেতৃত্বাধীন চার দলীয় জোট মনোনীত প্রার্থী অব্দুল মোমিন তালুকদার খোকা এ এলাকার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়। আইনী জটিলতার কারনে বিএনপির সাবেক এই সাংসদ এবার প্রার্থী হতে পানে নি, তবে বিএনপি ও জতীয় ঐক্যফ্রন্ট মনোনিত প্রাথী হয়েছেন তার স্ত্রী মাসুদা মোমিন।আইনী জটিলতার কারনে তিনি ও প্রচার প্রচারনা শুরু করেছেন গত ২৫ ডিসেম্বর থেকে। এ আসনে বিভিন্ন প্রার্থীরা বিভিন্ন রাজনৈতীক দলের প্রতীক নিয়ে প্রচার প্রচারনা করছেন তারা হলেন বিএনপি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট মনোনিত মাসুদা মোমিন ধানের শীষ, মহাজোট মনোনিত বর্তমান সাংসদ নূরুল ইসলাম তালুকদার নাঙ্গল, ইসলামী আন্দ্রোলন মনোনিত শাজাহান আলী হাতপাখা, গনতান্ত্রীক বিপ্লবীর পার্টির লিয়াকত আলী কোদাল, বিএনএফ মনোনিত আব্দুল কাদের জিলানী টেলিভিশন, সতন্ত্র প্রার্থী আফজাল হোনে নয়ন আপেল, আব্দুল মজিদ ডাব, নজরুল ইসলাম মোটরগাড়ী প্রতীক নিয়ে শেষ মহূর্তে প্রচার প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন