বগুড়া সংবাদ ডট কম (রায়হানুল ইসলাম, শেরপুর প্রতিনিধিঃ বিএনপি’র কেন্দ্রীয় কমিটি সংস্কারপন্থীদের সাধারণ ক্ষমা করে দলে ফিরে নিলেও তৃণমুলে তা না মেনে ক্ষমার অযোগ্য রেখেই আবারো ফুঁসে উঠেছে। তাই একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি তথা ঐক্যফ্রন্ট বগুড়া-৫ আসনে সাবেক সাংসদ জিএম সিরাজ (সংস্কারপন্থী) ও জেলা বিএনপি’র উপদেষ্টা জানে আলম খোকাকে প্রাথমিক মনোনয়ন তালিকায় রেখে মনোনয়ন পত্র জমাদানের নির্দেশ দেয়। এতে উভয় প্রার্থী মনোয়নপত্র জমা দিলেও জিএম সিরাজকে মানতে নারাজ উপজেলার স্থানীয় অনেকাংশের নেতাকর্মী ও সমর্থকরা। এরই ধারাবাহিকতায় বিএনপি’র সংস্কারপন্থী বলে খ্যাত ওই গোলাম মো. সিরাজকে স্থায়ী মনোনয়ন না দেওয়ার দাবিতে গত ১ ডিসেম্বর শনিবার বিকালে ঝাড়– মিছিল করেছে বগুড়ার শেরপুরের বিশালপুর চাটাইল গ্রামের বিএনপি সমর্থিত সাধারণ ভোটাররা।
জানা যায়, বগুড়া-৫ আসনে বিএনপি’র প্রাথমিক মনোনয়ন প্রার্থী গোলাম মো. সিরাজ প্রাথমিক মনোনয়ন পেয়ে গত শনিবার সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত শেরপুর উপজেলার মির্জাপুর ও খামারকান্দি এলাকায় গণ সংযোগ করেন। এই খবর ছড়িয়ে পড়লে উপজেলার বিশালপুর ইউনিয়নের চাটাইল গ্রামের সাধারণ ভোটাররা তার মনোনয়ন বাতিলের দাবিতে গত শনিবার বিকালে শত শত নারী পুরুষ ঝাঁড়– মিছিল করেছে।
এ ব্যাপারে বিশালপুর ইউনিয়ন বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার সাদাত মিন্টু ঝাড়– মিছিলের কথা স্বীকার করে বলেন- এটা আসলে জনরোষ। সংস্কারপন্থী নেতাকে এলাকার সাধারণ ভোটাররা মেনে নিতে পারছে না।
এ ব্যাপারে জাতীয়তাবাদি দল (বিএনপি’র) কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য কে এম মাহবুবুর রহমান হারেজ গণ-সংযোগের কথা অস্বীকার করে বলেন, প্রার্থীকে নিয়ে আমরা নেতাকর্মীদের সাথে সৌজন্য সাক্ষাত করছি।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন