বগুড়া সংবাদ ডট কম (মহাস্থান প্রতিনিধি এস আই সুমন) : শুক্রবার বেলা ১১ টায় বগুড়া সদরের ঠেঙ্গামারা এলাকায় পুর্বশত্রুতার জের ধরে বিবাদমান দুইপক্ষের মারামারি সংঘটিত হয়েছে। এতে কোনপক্ষের কেউ গুরুতর আহত হয়নি। তবে ঘটনার জন্য উভয় পক্ষ উভয় পক্ষকে দায়ী করে বগুড়া সদর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। অভিযোগের প্রেক্ষিতে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।
স্থানীয়রা জানান, সদরের নিশিন্দারা ইউনিয়নের ঠেঙ্গামারা পশ্চিম পাড়া এলাকার আবেদ আলীর ছেলে আব্দুস সামাদ এবং একই এলাকার আব্দুল আজিজ পাইকারের ছেলে হাফিজারের মধ্যে পূর্বশক্রতার জের ধরে মারামারি সংঘঠিত হয়। পরে স্থানীওরা উভয় পক্ষকে সরিয়ে দেয়।
এঘটনার পর আবেদ আলীর ছেলে আব্দুস সামাদ এবং আব্দুল আজিজ পাইকারের ছেলে হাফিজার পরস্পরের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করে।
আব্দুস সামাদ তার লিখিত অভিযোগে জানায় যে সে ঠেঙ্গামারা পেপার মিলের নিকট তার দোকান থেকে বাড়ি আসার পথে শাহিন পাইকার, জিহাদ হোসেন, হাফিজার পাইকার, শাওন, পুটু মিয়া আমার পথ রোধ করে দাঁড়ায় এবং আমাকে মারপিট করতে থাকে। এ সময় আমার ভাতিজা রিপন এগিয়ে আসলে তাকেও মারপিট করে এবং আমার নিকট থেকে ৫০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়।
অপর দিকে একই ঘটনার জন্য আবেদ আলীর ছেলে আব্দুস সামাদের বিরুদ্ধে আব্দুল আজিজ পাইকারের ছেলে হাফিজার রহমান সদর থানায় অভিযোগপত্রে জানান যে, আব্দুস সামাদের ছেলে আপেল আলী এবং মেয়ে শান্তনা বেগমসহ ১০/১২ জন লোক ধারালো অস্ত্রসহ জোর করে আমার বাড়িতে ঢুকে গালিগালাজ করতে থাকে। এর প্রতিবাদ করলে তারা আমাকে মারপিট করে আমার পকেট থেকে ২০ হাজার টাকা এবং স্বর্নালংকার ছিনিয়ে নিয়ে যায়। যাবারসময় আসবাবপত্র ভাংচুর করে যায়।
এঘটনার পর উভয় পক্ষের অভিযোগ দায়েরের প্রেক্ষিতে বগুড়ার সদর থানার পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন