বগুড়া সংবাদ ডট কম (রাহেনূর ইসলাম স্বাধীন, সারিয়াকান্দি (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে নিহত কলেজ ছাত্র নাঈম (২০) হত্যার সময় ব্যবহৃত চাকু সহ বিভিন্ন আলামত উদ্ধার করেছে সারিয়াকান্দি থানা পুলিশ। রোববার রাতে (১৮নভেম্বর) নিহতের আটক বন্ধু ও সারিয়াকান্দি শহর ছাত্রলীগের বহিস্কৃত সাধারণ সম্পাদক এস.এম. অনন্ত শ্রাবন বিশুর ভাড়া বাড়ীর বিছনার নিচ থেকে হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত রক্তাক্ত চাকু সহ বেশ কয়েকটি চাকু, দা, নিহতের মানিব্যাগ, জাতীয় পরিচয় পত্র, ছবি, জুতা, রক্তমাখা বালিশ, একাধিক রক্তামাখা কাপড়, বিশুর রক্তমাখা জামা কাপড় ও রক্তমাখা বিছানার চাদর সহ বালতিতে ভিজানো বালিশেল কভার উদ্ধার করে সারিয়াকান্দি থানা পুলিশ।
এমসয় সহকারী পুলিশ সুপার, গাবতলীল সার্কেল, তাপশ কুমার পাল, সারিয়াকান্দি থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আল আমিন, ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও সাংবাদিক বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। এব্যাপারে সারিয়াকান্দি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আল আমিন সাংবাদিকদের বলেন, সহকারি পুলিশ সুপার (গাবতলী সার্কেল) তাপস কুমার পাল স্যারের উপস্থিতে নাঈম হত্যা কান্ডে ব্যবহৃত চাকু সহ যথেষ্ট আলামত উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে সারিয়াকান্দি থানা পুলিশ। খুব শীঘ্রই এর সাথে যারা জড়িত আছে তাদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।
উল্লেখ্য, নাঈম বগুড়া বী’টের টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র এবং গাবতলী উপজেলার মহিষাবান ইউনিয়নের গোলাবাড়ী (মড়িয়া) গ্রামের স্বর্ণ ব্যবসায়ী ইন্তেজার রহমানের ছেলে। বৃহস্পতিবার রাতে তাকে নৃশংসভাবে গলা কেটে হত্যার পর লাশ বিকৃতি করতে আগুনে পোড়ায় হত্যাকারিরা। ইতোমধ্যে এ হত্যা কান্ডে জড়িতদের বিরুদ্ধে নাঈমের মা নাজমা বেগম শুক্রবার রাতে ছয়জনের নামে মামলা করেন।
Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন