বগুড়া সংবাদ ডট কম (সাগর খান, আদমদীঘি প্রতিনিধি ঃ বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার চাঁপাপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের প্রচার সম্পাদক মাদক ব্যবসায়ী নজরুল ইসলাম (৫৫) কে গত শুক্রবার রাতে গলা কেটে হত্যা ঘটনায় অজ্ঞাত নামা উল্লেখ করে শনিবার রাতেই আদমদীঘি থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত হত্যার সাথে জড়িত কাহাকে গ্রেফতার বা হত্যার অস্ত্র উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ।

উল্লেখ্য, আদমদীঘির চাঁপাপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের প্রচার সম্পাদক ও মন্দিরপুকুর গ্রামের সখিন সরদারের ছেলে মাদক ব্যবসায়ী নজরুল ইসলাম শুক্রবার সন্ধ্যা রাতে ছেলে নাজমুল ইসলাম (১৯) কে সাথে নিয়ে চাঁপাপুর বাজারে যায়। প্রয়োজনীয় সামগ্রী কিনে দিয়ে পড়ে আসছি বলে ছেলে কে বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। কিন্তু যথা সময়ে বাড়িতে না ফেরায় পরিবার পরিজন গভীর রাত পর্যন্ত বিভিন্ন স্থানে খোঁজ করে। কিন্তু সন্ধান মেলেনি। শনিবার সকাল ১০টার বাড়ির পাশে ধানের ক্ষেতে কৃষকরা নজরুলের জবাই করা লাশ দেখে বাড়িতে এবং থানা পুলিশ কে খবর দেয়। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে বগুড়া মর্গে পাঠিয়েছে।

এ ঘটনায় নিহতের ছোট ভাই শাহজাহান বাদী হয়ে অজ্ঞাত নামা উল্লেখ করে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলায় উল্লেখ করেন, নজরুল ইসলাম একজন মাদক ব্যবসায়ী ছিলেন জেল থেকে বের হয়ে আসার পর তাকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ গত শনিবার চাঁপাপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি শাহীনুর ইসলাম (শাহীন) ও রবিউল কে সন্দেহ ভাবে আটক করেন। মামলার তদন্তকারী অফিসার ওসি (তদন্ত) আব্দুর রাজ্জাক বলেন, আটক শাহিন ও রবিউলের নামে অন্য মামলার আদালতের গ্রেফতারী পরোয়ানা আছে তবে এই হত্যাকান্ডের ঘটনায় তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে এদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন