bograsangbad_Logo

বগুড়া সংবাদ ডট কম (আদমদীঘি প্রতিনিধি সাগর খান) : বগুড়ার আদমদীঘিতে ফেরদৌসি বেগম (২১) নামের এক গৃহবধুর রহস্যজনক ভাবে মৃত্যু হয়েছে। সে স্বামীর নির্যাতনে নিহত হয়েছে নাকি বিদ্যুৎ স্পর্শে মারা গেছে এ গিয়ে গ্রামে চলছে নানা গুঞ্জন। ফেরেদৌসি বেগম কুন্দ্রগ্রামের জয়দেবপুর পাড়ার আল আমিনের স্ত্রী ও এক সন্তানের জননী। গত শুক্রবার বিকেলে পুলিশ মরদেহ উদ্দার করে ময়না তদন্তের জন্য বগুড়া বর্গে প্রেরন করেছে। এ ব্যাপারে আদমদীঘি থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানা গেছে।
জানা যায়, আদমদীঘি উপজেলার তিলোচ সিতাহার পাড়ার প্রবাসী বিদ্যুত আলী খানের মেয়ে ফেরদৌসি বেগমের ৬ বছর পূর্বে একই এলাকার জয়দেবপুর পাড়ার জামাল উদ্দিন আকন্দের ছেলে আল আমিনের সাথে বিয়ে হয়। তাদের ২ বছর বয়সের একটি সবিতা নামে সন্তান রয়েছে। এদিকে স্বামীর পরকীয়ায় বাধা দেয়ায় বিয়ে বিচ্ছেদের ঘটনা ঘটে। এরপর ৫ মাস পর আবার সমঝোতার ম্যাধমে পুনরায় ফেরদৌসি বেগমকে বিয়ে করে আল আমিন বাড়িতে নিয়ে যায়।
এ ব্যাপারে নিহতের চাচা শেরেকুল ইসলাম জানায়, স্বামীর পরকিয়ায় বাধা দেয়ায় প্রায় তার ভাতিজীকে প্রায় নির্যাতন করতো। আর তার ভাতিজীকে নির্যাতন করে হত্যা করা হয়েছে বলে তিনি দাবী করেন। নিহতের মাথা ও শরীরে দাগ রয়েছে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়। এদিকে নিহতের শ্বশুর জালাল উদ্দিন আকন্দ জানায়, সকাল ৮ টায় মুরগি সেডে বিদ্যুতায়িত হয়ে তার পুত্র বধুর মারা যায়। ওসি শওকত করিব ঘটনা নিশ্চিত করে জানায়, মৃত্যুটি রহস্যজনক হওয়ায় ময়না তদন্তের জন্য লাশ মর্গে প্রেরন করা হয়েছে। রির্পোট পাওয়া গেলে মৃত্যু রহস্য জানা যাবে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন