বগুড়া সংবাদ ডট কম: বগুড়া ডায়াবেটিক সমিতির ব্যবস্থাপনায় যথাযোগ্য মর্যাদায় বুধবার সকালে বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস ২০১৮ পালন করা হয়। এবারের প্রতিবাদ্য বিষয়-“ডায়াবেটিস প্রতিটি পরিবারের উদ্বেগ”। দিনের কর্মসুচী শুরু হয় সকাল সাড়ে ৭টায় বিনামূল্যে ডায়াবেটিস নির্ণয় ক্যাম্পের মধ্য দিয়ে। এবারই প্রথম দেশব্যাপী অনুষ্ঠিত ডায়াবেটিস নির্ণয় ক্যাম্পের মাধ্যমে বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতি ডায়াবেটিস নির্ণয় বিষয়ক জরিপ পরিচালনা করে। এই কার্যক্রমের অংশ হিসাবে বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলার লক্ষীকোলা শাহ রওশন জালাল উচ্চ বিদ্যালয়, গাবতলী উপজেলার রামেশ্বরপুর শুভপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং দুপচাঁচিয়া উপজেলার তালোড়া পৌরসভা চত্বরেও বিনামূল্যে ডায়াবেটিস নির্ণয় ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়েছে। ক্যাম্পগুলোতে আগ্রহীদের উপচে পড়া ভীড় লক্ষ্য করা যায়। সমিতি প্রাঙ্গনে অদ্যকার ক্যাম্প এবং উপজেলা পর্যায়ে বিভিন্ন দিনে অনুষ্ঠিত ক্যাম্পগুলোতে সহস্রাধিক মানুষের বিনামূল্যে ডায়াবেটিস নির্ণয় (খালিপেটে) পরীক্ষা এবং হাসপাতালের চিকিৎসকবৃন্দ পরামর্শ প্রদান করেন।
দিনের অন্যান্য কর্মসূচীর মধ্যে সকাল ৯টায় বেলুন ও কবুতর উড়িয়ে বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস ২০১৮-এর উদ্বোধন করেন বগুড়ার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) রায়হানা ইসলাম এবং বগুড়া ডায়াবেটিক সমিতির সহ সভাপতি এ্যাডভোকেট মকবুল হোসেন মুকুল ও সাধারণ সম্পাদক তৌফিকুর রহমান বাপ্পি ভান্ডারী। তাদের নেতৃত্বে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালী বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। র‌্যালীতে আরও উপস্থিত ছিলেন বগুড়া সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এস এম বদিউজ্জামান, পুলিশ পরিদর্শক অপারেশন্স এন্ড কমিউনিটি পুলিশিং, সদর থানা মোঃ আবুল কালাম আজাদ, ডেপুটি সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আব্দুল ওয়াদুদ, জুনিয়র স্বাস্থ্যশিক্ষা অফিসার মোঃ আব্দুল হান্নান, বগুড়া ডায়াবেটিক সমিতির সহ সভাপতি আলহাজ্ব আবুল কালাম আজাদ, যুগ্ম সম্পাদক শাহ মোঃ আখতারুজ্জামান ডিউক, মোঃ আব্দুল ওয়াহাব তারেক, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল্লাহেল কাফি-ছানা, দপ্তর সম্পাদক একেএম ফজলুল হক রেন্টু, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মোজাম্মেল হক তালুকদার, নির্বাহী সদস্য আব্দুল খালেক বাবলু, আবু বক্কর সিদ্দিক, মোঃ আনোয়ারুল ইসলাম (বাচ্চু), এএম রেজাউল হক মন্টু, তোফাজ্জল হোসেন, এমএ জিন্নাহ, শাহেদ জাবেদুর। এছাড়াও বগুড়া ডায়াবেটিক সমিতির অনেক আজীবন সদস্য ও বগুড়া স্বাস্থ্যসেবা হাসপাতালের সকল পর্যায়ের চিকিৎসক, কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ এবং বিভিন্ন ফার্মাসিউটিক্যালস কোম্পানীর প্রতিনিধিগণ র‌্যালীতে অংশগ্রহন করেন।
র‌্যালী শেষে সংস্থার হলরুমে বগুড়া ডায়াবেটিক সমিতির সহ সভাপতি এ্যাডভোকেট মকবুল হোসেন মুকুল-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বগুড়া ডায়াবেটিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক তৌফিকুর রহমান বাপ্পি ভান্ডারী। আরও উপস্থিত ছিলেন সমিতির যুগ্ম সম্পাদক আখতারুজ্জামান ডিউক ও আব্দুল ওয়াহাব তারেক, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মোজাম্মেল হক তালুকদার। সভায় বিষয়ভিত্তিক বক্তব্য রাখেন বগুড়া স্বাস্থ্যসেবা হাসপাতালের শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ ও হাসপাতালের ক্লিনিক্যাল কো-অর্ডিনেটর ডাঃ মোঃ আলী আশরাফ, চক্ষু বিশেষজ্ঞ ডাঃ মোঃ জাকিরুল ইসলাম এবং গাইনী বিশেষজ্ঞ ডাঃ রোকসানা বানু। আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, এক সমীক্ষায় দেখা গেছে বর্তমান বিশ্বে প্রতি ১১জনে ১জন ডায়াবেটিস রোগে আক্রান্ত। বিশেষজ্ঞের মতে পরিবর্তিত নগরায়ণ, জীবনযাপন ও খাদ্যাভ্যাসের কারণে ডায়াবেটিস নিয়ে পারিবারিক উদ্বিগ্নতা যেমন বাড়ছে তেমনী ডায়াবেটিসের কারনে গর্ভকালীন জটিলতা, চক্ষু সমস্যা, শিশু ডায়াবেটিসসহ অন্যান্য জটিলতাও দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতি ইতিমধ্যে গর্ভকালীন ডায়াবেটিস প্রতিরোধে প্রকল্প হাতে নিয়েছে। এর আওতায় বগুড়া ডায়াবেটিক হাসপাতালেও স্বল্পমূল্যে গর্ভধারণ সংক্রান্ত বিশেষজ্ঞ সেবা ও পরামর্শ পাওয়া যাচ্ছে। বক্তারা ডায়াবেটিসজনিত অন্ধত্ব এড়াতে ডায়াবেটিস রোগীদের বৎসরে অন্তত একবার চক্ষু পরীক্ষা করার পরামর্শ দেন এবং শিশুদের ডায়াবেটিস প্রতিরোধে শিশুদের নিয়মিত খেলাধুলায় উৎসাহ প্রদান, কোমল পাণীয় ও ফাষ্টফুড খাওয়া থেকে যতদূর সম্ভব বিরত রাখার বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন