বগুড়া সংবাদ ডটকম (ইমরান হোসেন ইমন, ধুনট প্রতিনিধি: বগুড়ার ধুনটে জেডিসি পরীক্ষার্থী তিন ছাত্রীকে প্রকাশ্য দিবালোকে রাস্তার ওপর চড় থাপ্পড়ের পর শ্লীলতাহানীর অভিযোগে হাফিজুর রহমান (১৯) নামের এক বখাটে যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রবিবার বিকলে এক ছাত্রীর লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ তাৎক্ষনিক অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত ওই যুবককে গ্রেফতার করেছে।
থানাপুলিশ ও স্থানীয়সূত্রে জানাগেছে, এলাঙ্গী ইউনিয়নের বিলচাপড়ী দাখিল মাদ্রাসার তিন ছাত্রী রবিবার দুপুর ১টায় ধুনট মহিলা কলেজ কেন্দ্রে জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষা শেষে বাড়ী ফিরছিল। পথিমধ্যে নলডাঙ্গা তিনমাথা মোড় এলাকায় পৌছালে নলডাঙ্গা গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে জয় (১৮), ইউনুস আলীর ছেলে হাফিজুর রহমান (১৯) ও এনামুল হকের ছেলে মানিক মিয়া (২০) ওই ছাত্রীদের পথরোধ করে অশ্লীল ভাষায় কথাবার্তা বলতে থাকে এবং কু-প্রস্তাব দেয়। এতে ছাত্রীরা প্রতিবাদ করলে ওই বখাটে তিন যুবক সহ অজ্ঞাত আরো ৪/৫ যুবক তাদেরকে প্রকাশ্য দিবালোকে রাস্তার ওপর চড় থাপ্পর মেরে পড়নের কাপড় চোপড় টানা হেঁচড়া করে বিবস্ত্র করে। এতে বাধা দিলে ছাত্রীদের বহনকারী ভ্যান চালক শিহাব উদ্দিনকেও মারধর করে বখাটেরা। এসময় ছাত্রীদের চিৎকারে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে আসলে কৌশলে পালিয়ে যায় বখাটেরা। পরে ওই ছাত্রীদের মধ্যে এক ছাত্রী বাদী হয়ে বখাটে জয়, হাফিজুর রহমান ও মানিক মিয়াকে আসামী করে অজ্ঞাত ৪/৫জনের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। পরে পুলিশ তাৎক্ষনিক অভিযান চালিয়ে রবিবার সন্ধ্যায় বখাটে হাফিজুর রহমানকে নিজ বাড়ী থেকে গ্রেফতার করেছে।
ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইসমাইল হোসেন জানান, ছাত্রীদেরকে শ্লীলতাহানীর অভিযোগে একজনকে তাৎক্ষনিক গ্রেফতার করা হয়েছে। এঘটনায় সোমবার দুপুরে বিলচাপড়ী দাখিল মাদ্রাসার সহকারী সুপার আব্দুর রহিম বাদী হয়ে এজাহারভুক্ত ৩ জন এবং অজ্ঞাত আরো ৪/৫জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেছেন এবং অন্য আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন