বগুড়া সংবাদ ডট কম (সঞ্জু রায়: সরকারী হাসপাতালে শিশুরা সঠিক চিকিৎসা পাচ্ছে কিনা এবং হাসপাতালে শিশুর সুচিকিৎসা নিশ্চিতকরণে কোন সমস্যা রয়েছে কিনা তা পর্যবেক্ষণের লক্ষ্যে ন্যাশনাল চিলড্রেনস্ টাস্ক ফোর্স (এনসিটিএফ) বগুড়া জেলা শাখার নেতৃবৃন্দরা রবিবার সকালে শহরের মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ড পরিদর্শন করেছে।

পরিদর্শনে হাসপাতালের চিকিৎসা সেবা নিয়ে সকল চিকিৎসারত শিশুর অভিভাবকরা সন্তোষ প্রকাশ করেছে। সেই সাথে চিকিৎসকরাও যথেষ্ট আন্তরিকতার সাথে তাদের চিকিৎসা প্রদান করে বলেও তারা এনসিটিএফ নেতৃবৃন্দদের জানান। তবে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট এই সরকারি হাসপাতালে শিশু ওয়ার্ডে বেডের সংখ্যা মাত্র ২০টি তাই এই অল্প বেডে অসুস্থ শিশুদের চিকিৎসা প্রদান করতে অনেকটাই হিমশিম খাচ্ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। গতকালকেও প্রায় ৩৪ জন ভর্তি ছিল এই ওয়ার্ডে।

শিশু ওয়ার্ডে ব্যবহার করার জন্য রাখা টয়লেট ও মেঝে অপরিষ্কার থাকা যা অস্বাস্থ্যকর হিসেবে ব্যবহারে খুব কষ্ট হয় বলেও জানিয়েছে রোগীর স্বজনরা। সার্বিক পর্যবেক্ষন শেষে এনসিটিএফ এর শিশু নেতৃবৃন্দরা হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার শফিক আমিন কাজলের সাথে কথা বললে তিনি জানান, এনসিটিএফ শিশু নেতৃবৃন্দরা জেলার সকল শিশুদের সুচিকিৎসার খোঁজ নিতে এসেছে তা অত্যন্ত প্রশংসনীয়। পর্যবেক্ষণে উঠে আসা সমস্যাগুলো অতিদ্রুত আন্তরিকতার সাথে সমাধানেরও প্রতিশ্রুতি দেন তিনি এনসিটিএফ বগুড়াকে।

এনসিটিএফ বগুড়া জেলা শাখার সভাপতি পুষ্পা খাতুন ও সাধারণ সম্পাদক মেহরাব হোসেন তানভীর এর নেতৃত্বে হাসপাতাল পরিদর্শনে উপস্থিত ছিলেন সহ-সভাপতি যেরোম স্টিভ শিকদার, সাংগঠনিক সম্পাদক আফিয়া ইবনাত নকশি, শিশু সাংবাদিক মুশফিকুর রহমান সিজান ও উম্মে কুলসুম করবী, শিশু গবেষক নিতু, শিশু সাংসদ নুসরাত জাহান নিধি ও মেহেদী হাসান। পরিদর্শনে সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ছিলেন এনসিটিএফ বগুড়া জেলার ভলেন্টিয়ার পারমিতা ভট্টাচার্য্য ও সঞ্জু রায়।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন