বগুড়া সংবাদ ডট কম (আদমদীঘি প্রতিনিধি সাগর খান) : বগুড়ার আদমদীঘিতে মায়ের আত্মহত্যার খবর শুনে মেয়েও আত্মহত্যার করেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলার নসরতপুর ইউনিয়নের ধামাইল গ্রামে। একই সাথে দুটি মৃত্যুর ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। এ ব্যাপারে আদমদীঘি থানায় একটি ইউডি মামলা হয়েছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ধামাইল গ্রামের আব্দুর রহমানের স্ত্রী ফাতেমা (৩৫) গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আত্মহত্যা করেছে এমন সংবাদ পেয়ে তার মেয়ে খালেদা আক্তার কল্পনা (১৫) নানা বাড়ি থেকে ফিরে এসে দেখে তার মা আর নেই। এর কিছুক্ষন পরেই মায়ের শোকে মেয়ে আত্মহত্যা করার জন্য বিষাক্ত গ্যাস বড়ি সেবন করে। সাথে সাথে তাকে আদমদীঘি হাসপাতাল নেয়। কিন্তু তার অবস্থা বেগতিক দেখে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হলে রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। সে শাঁওইল দ্বি-মুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণীর ছাত্রী।
এ ব্যাপারে থানার অফিসার ইনচার্জ মনিরুল ইসলাম মনির জানান, মৃত্যুর পেছনের কারণ জানা যায়নি। তবে কল্পনার মা ফাতেমা দীর্ঘ দিন ধরে জরায়ু সহ বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন। এটিই ফাতেমার মৃত্যুর কারণ হতে পারে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন