বগুড়া সংবাদ ডট কম (সোনাতলা সংবাদদাতা মোশাররফ হোসেন) : ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে বার্ণ ইউনিটে চিকিৎসাধীন খোরশেদ আলম (১৮) নামে এক দরিদ্র নির্মাণ মিস্ত্রীর চিকিৎসার খরচ বহনের দায়িত্ব নিয়ে মানবিক কাজ করছেন মোশাররফ হোসেন চৌধুরী। এই হৃদয়বান ব্যক্তি হলেন সোনাতলার কৃতিসন্তান, বিশিষ্ট সমাজ সেবক, আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বগুড়া-১ আসনের বিএনপি মনোনয়ন প্রত্যাশী, বগুড়া জেলা বিএনপির শিশু বিষয়ক সম্পাদক ও জিয়া শিশু-কিশোর সংগঠন কেন্দ্রিয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক। খোরশেদ আলম ২২ অক্টোবর ঢাকার ইয়ারপোর্ট কাওলা এলাকায় একটি বিল্ডিংয়ে কাজ করতে যেয়ে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে দগ্ধ হয়। তার শরীরের বিভিন্ন স্থান পুড়ে মারাত্মক ক্ষতি হয়। সে বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার তেকানী চুকাই নগর ইউনিয়নের মহেশপাড়া গ্রামের মৃত তোফাজ্জল হোসেন সরকারের ছেলে। এই দুর্ঘটনার সংবাদ পেয়ে মোশাররফ চৌধুরী দগ্ধ খোরশেদ আলমকে ওইদিন দেখার জন্য ছুটে যান হাসপাতালে। তিনি ছেলেটির চিকিৎসার জন্য সম্পূর্ণ খরচ বহনের দায়িত্ব নিয়েছেন এবং নিয়মিত খোঁজ-খবর রাখছেন বলে খোরশেদ আলমের বড় ভাই রতন ও চাচা ওয়াহেদুল ইসলাম জানান। তারা আরো জানান, মোশাররফ চৌধুরী ছেলেটির বিপদে পাশে দাঁড়িয়ে একটি মহৎ কাজ করছেন। দায়িত্ব পালন করছেন অভিভাবকের। মহৎ কাজের প্রশংসাসহ আমরা তার জন্য দোয়া করি। মোশাররফ হোসেন চৌধুরী জানিয়েছেন যেহেতু আমি ঢাকায় থাকি, সে কারণে আমি এই দুঃখজনক সংবাদ পাওয়া মাত্র হাসপাতালে যেয়ে খোরশেদ আলমের শয্যা পাশে দাঁড়িয়ে তাকে শান্তনা দেই এবং তার চিকিৎসার জন্য অর্থ ব্যয় বহনের সম্পূর্ণ দায়িত্ব নিয়েছি। খোরশেদ আলমের ভাই রতন জানিয়েছেন, বর্তমানে খোরশেদ আলমের শারীরিক অবস্থা উন্নতির দিকে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন