বগুড়া সংবাদ ডট কম (এইচ আলিম, বগুড়া) : তামাক নিয়ন্ত্রন আইন লঙ্ঘন হ্রাসকরণে আইন অনুযায়ী মামলা প্রদান বিষয়ে কর্তৃত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের (জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের কর্মরত সকল স্যানিটারী ইন্সপেক্টর) সাথে বগুড়ায় অ্যাডভোকেসী সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার বিকালে বগুড়া সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সভাকক্ষে জেলার ডেপুটি সিভিল সার্জন ডাঃ আব্দুল ওয়াদুদ এর সভাপতিত্বে অ্যাডভোকেসী সভার মূল আলোচনার বিষয়বস্তু ছিল তামাক নিয়ন্ত্রণ আইনের লঙ্ঘন ঠেকাতে কর্তৃত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তার মাধ্যমে আইন অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে পিটিশন দাখিল করা। সভায় উপস্থিত ছিলেন পল্লী উন্নয়ন প্রকল্পের কর্মসূচী সমন্বয়কারী মোঃ মাসরুকুল ইসলাম, এসোসিয়েশন ফর কমুনিটি ডেভেলপমেন্ট-এসিডির প্রজেক্ট কো-অর্ডিনেটর খন্দকার এহসানুল আমিন ইমন, বগুড়া পৌরসভার স্যানিটারী ইন্সপেক্টর শাহ আলী খান সহ বগুড়া জেলার ও সকল উপজেলার স্যানিটারী ইন্সপেক্টর বৃন্দ।
সভায় উপস্থিত স্যানিটারী ইন্সপেক্টরবৃন্দ তাদের মতামত ব্যক্ত করতে গিয়ে জানান যে, তামাক ও তামাকজাতদ্রব্য ব্যবহার নিয়ন্ত্রণ আইন অনুযায়ী কর্তৃত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হিসেবে তাদের দায়িত্ব ও কর্তব্য সম্পর্কে তাঁরা মোটামুটি অবগত। কিন্তু পিটিশন দাখিল করার ক্ষেত্রে তাঁরা নানাবিধ সীমাবদ্ধতার কথা তুলে ধরেন। এক্ষেত্রে তাঁরা আইনি প্রক্রিয়া পরিচালনার জন্য অর্থ সংস্থান, ব্যক্তিগত নিরাপত্তা ও ঝুঁকি এবং সময়ের স্বল্পতার কথা উল্লেখ করেন।
সভায় তামাক নিয়ন্ত্রণ আইনের অধিকতর প্রয়োগ ও মামলা প্রদান বিষয়ে পরিকল্পনা প্রনয়ণ ও কর্ম কৌশল সর্ম্পকিত পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশন উপস্থাপন করেন এসিডির প্রজেক্ট কে-অর্ডিনেটর মোঃ এহসানুল আমিন ইমন এবং তাকে সার্বিক সহযোগীতা করেন পল্লী উন্নয়ন প্রকল্পের প্রোগ্রাম অফিসার মোঃ খায়রুল হাসান কোমল। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সিভিল সার্জন অফিসের জুনিয়র স্বাস্থ্য শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ আব্দুল হান্নান।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন