বগুড়া সংবাদ ডট কম (জিয়াউল ইসলাম আপেল: বগুড়া জেলা যুবদলের সভাপতি ও কাউন্সিলর সিপার আল বখতিয়ারকে গ্রেফতার করার উদ্দেশ্যই তাঁর এলাকায় অভিযান চালিয়েছে পুলিশ। রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত হয়ে অবৈধ সরকার কর্তৃক বিরোধী দমন নীতির অংশ হিসেবে পুলিশ প্রশাসনকে মিথ্যা প্ররোচনা দিয়ে ব্যবহার করে অন্যায়ভাবে নেতা-কর্মীদের গ্রেফতার করে মিথ্যা মামলা দিয়ে জেলে প্রেরণ করা হয়েছে। জেলা যুবদলের সহ-সভাপতি ফিরোজ হোসেন, কবির ইসলামকে কোন মামলা না থাকা সত্বেও গ্রেফতার করা হয়েছে।

ডেকোরেটর ব্যবসায়ী মনির হোসেন ও প্রফেসর রুবেল হোসেনকেও গ্রেফতার করা হয়েছে। অথচ তাঁরা রাজনীতিই করেনো। তিব্র নিন্দা প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে তাদের নিঃশর্ত মুক্তিদাবি করে বিবৃতি দিয়েছে যুবদলের সাধারণ সম্পাদক খাদেমুল ইসলাম খাদেম, সাংগঠনিক সম্পাদক ফারুকুল ইসলাম ফারুক, সাব্বির হোসেন বাবলু, রাফিউল ইসলাম রুবেল, শাহনেওয়াজ সাজন, মাসুদ রানা মাসুদ, আক্তারুজ্জামান লিটন, অধ্যক্ষ শাহীন, সাইফুল ইসলাম রনি, আহম্মেদ বিন বিল্লাহ শান্ত, জহুরুল ইসলাম ফুয়াদ, ইঞ্জিঃ জিয়াউল ইসলাম আপেল, আনোয়ার হোসেন সান্টু, আনোয়ার হোসেন স্বপনসহ যুবদল’র বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ। যদি মিথ্যা মামলায় পুলিশি হয়রানি করা অথবা কোন নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করার চেষ্টা করা হয় তবে রাজপথে ফের কঠোর কর্মসূচি দিতে যুবদল বাধ্য থাকবে। খবর বিজ্ঞপ্তির।

 

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন