বগুড়া সংবাদ ডট কম (আবু রায়হান, দুপচাঁচিয়া খেকে) : বগুড়া জেলার পশ্চিমে দুপচাঁচিয়া আদমদিঘী এলাকা যা সংসদীয় আসনে বগুড়া ৩ আসন হিসাবে পরিচিত। জাতীয় সংসদ নির্বাচন কে কেন্দ্র করে এ এলাকায় প্রার্থীরা দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার জন্য দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছে। উত্তর জনপদের শস্যভান্ডার হিসাবে পরিচিত দুপচাঁচিয়া উপজেলা চাল উৎপাদনে বিক্ষ্যাত। এ উপজেলা ২ পৌরসভা ৬ ইউনিয়ন পরিষদ নিয়ে গঠিত। পাশ্ববর্তী আদমদিঘী উপজেলা ৬ ইউনিয়ন পরিষদ ও একটি পৌরসভা যার পশ্চিমে রয়েছে সান্তাহার রেলওয়ে জংশন। সংসদীয় গনতন্ত্রে এ আসনটি ছিল সব সময় বিএনপির দখলে, সর্বশেষ ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারী বিএনপি নির্বাচন বর্জন করলে এ আসনটি বিনা ভোটে চলে যায় জাত্বীয় পাটির দখলে। আসন্ন একাদশ সংসদ নির্বাচন কে কেন্দ্র করে এ এলাকায় শুরু হয়েছে নির্বাচনের আমেজ।বিএনপি আওয়ামীলীগ ও জাত্বীয় পাটির নেতারা একদিকে মনোনয়ন লাভের প্রত্যাশায় কেন্দ্রীয় নেতাদের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করছে অন্যদিকে তৃণমূল নেতা কর্মীদের মাঝে ব্যাস্ত সময় পার করছে। মনোনয়ন প্রত্যাশীরা নিজেদের ছবি সম্মেলিত ব্যানার, ফেষ্ঠুন, বিলবোর্ড, পোষ্টার ছাপিয়ে প্রচার প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছে। এমনকি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ও মনোনয়ন প্রত্যাশীরা প্রচার প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছে। এর মধ্যই সম্ভাব্য প্রার্থীরা এলাকার মসজিদ মন্দির সহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে অনুদান দেওয়া শুরু করেছে সেই সাথে বিভিন্ন হাট বাজারে গন সংযোগ করছে,আবার এলাকার অন্নয়নের জহন্য দিয়ে যাচ্ছে নানান প্রতিস্থুতি। এ এলাকায় পঞ্চম জাত্বীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী আব্দুল মজিদ তালুকদার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়।১৯৯৬ সালের ১৫ ফেব্রয়ারী ৬ষ্ট জাত্বীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মেজর অবঃ গোলাম মওলা সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়।একই বছরের ১২ জুন সপ্তম জাত্বীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী আব্দুল মজিদ তালুকদার ২য় বারের মত সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়।২০০১ সালের অষ্টম ও ২০০৮ সালের নবম জাত্বীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি নেতৃত্বাধীন চার দলীয় জোট মনোনীত প্রার্থী অব্দুল মোমিন তালুকদার খোকা এ এলাকার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়।২০১৪ সালের ২৮ ডিসিম্বর দুপচাঁচিয়া পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপি মনোনিত প্রার্থী নির্ধারনে ব্যার্থ হয়ে নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীর ব্যাপক ভরাডুবির কারনে নেতা কর্মীদের সমালোচনার মুখে পরেন বিএনপির সাবেক এই সংসদ সদস্য। সেই সময় দুপচাঁচিয়া বিএনপির এক অংশের নেতাকর্মীরা বিএনপির এ নেতার বিরুদ্ধে মনোনয়ন বানিজ্যের অভিযোগ তোলেন। বিগত ইউনিয়ন নির্বাচনে এ এলাকার বিএনপি প্রার্থীদের ভরাডুবির কারনে আবারও নেতা কর্মীদের সমালোচনার মুখে পরেন বিএনপি নেতা মোমিন তালুকদার খোকা।সাম্প্রতি বিএনপির এই বিতরর্কীত নেতার বিরুদ্ধে আন্তজাত্বীক অপরাধ ট্রাইবোন্যালে ১৯৭১ সালের মানবতা বিরোধী অপরাধের মামলায় গ্রেফতারী পরোওয়ানা জারি হওয়ায় বিএনপির এ নেতা গাঁ ঢাকা দিয়েছেন বলে স্থানীয় নেতাকর্মী সুত্রে জানা গেছে। এ সুযোগ টাকে কাজে লাগিয়ে বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী বেশ কয়েকজন নেতারা,পাসাপাশি থেমে নেই ক্ষমতাশীল আওয়ামীলীগ নেতারাও। বর্তমানে বিএনপির যে সব নেতারা এ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী তারা হলেন বগুড়া জেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি, জেলা বিএনপির যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক ও বগুড়া শহর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক হামিদুল হক চৌধুরী হিরু, জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ সভাপতি ফজলুল বারী তালুকদার বেলাল, জেলা শ্রমিকদলের প্রধান উপদেষ্টা বিএনপি নেতা সুলতান মাহমুদ চৌধুরী, জেলা বার সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান মুক্তা, জাত্বীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম বগুড়া ইউনিটের সভাপতি শেখ মোকলেছুর রহমান ও আদমদিঘী উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল মুহিত তালুকদার। আওয়ামীলীগের যে সব নেতারা মনোনয়ন প্রত্যাশী তারা হলেন আদমদিঘী উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক উপজেলা চেয়্যারমান সিরাজুল ইসলাম খান রাজু,জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি সোলাইমান আলী মাষ্টার, আব্দুল মতিন পিপি, দুপচাঁচিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান খাঁন সেলিম, জাতীয় পাটির মনোনয়ন প্রত্যাশী বর্তমান সংসদ সদস্য নরুল ইসলাম তালুকদার ও স্থানীয় জাপা নেতা তহিদুল ইসলাম তহিদ।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন