বগুড়া সংবাদ ডট কম : কাহালুর চিহ্নিত ভূমিদস্যু, সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ ও মামলাবাজের বিরূদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে। রবিবার সকাল ১১.৩০ টায় বগুড়া প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন কাহলু উপজেলার মুরইল ইউনিয়নের যাত্রশুল গ্রামের মৃত মোখলেছার রহমান এর পুত্র মো: আবুল কালাম আজাদ। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, যে তার চাচা একই এলাকার মৃত-মুনছুর আলীর ছেলে মো: আব্দুল কাদের একজন চিহ্নিত ভূমিদস্যু, সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ ও মামলাবাজ বটে। হেন কাজ নাই তার দ্বারা সম্ভব নয়। উক্ত কাদের ও এলাকার চিহ্নিত সস্ত্রাসিরা তার বগুড়া জেলা জজ আদালত থেকে ডিক্রি প্রাপ্ত জায়গা দখলের জন্য ক্রমাগত হুমকি ধামকি দিয়ে আসছে। সে আরো জানাই জেলা বগুড়ার ১ম যুগ্ন জজ আদালত মোকদ্দমান নং ২৪৩/৬২ বন্টন বাদী- আবু সাইদ দিং ও বিবাদী মোখলেছার রহমান দিং উপরোক্ত নম্বর মোকদ্দমাটি দাখিল হয়েছিল ১৫-১২-১৯৬২ উক্ত মোকদ্দমার নং বিবাদী মোখলেছার রহমান এবং ৩ নং বিবাদী ছিল। বিগত ইং ১৩-০৮-১৯৬৪ তারিখে প্রাথমিক ডিক্রী হয়। উক্ত প্রাথমিক ডিক্রী অনুযায়ী কমিশনার রিপোর্ট অনুযায়ী ছাহাম চিঠা তৈয়ার হয়। তৎপর উক্ত ছাহাম চিঠাতে ১/৩/৫ ও ৭ নং বিবাদী ছাহাম প্রাপ্ত হয়। উক্ত ফিল্ড বুক ডিক্রীর একাংশবলে গন্য হয়েছে। উক্ত ফিল্ড বুকের (ঘ) তপশীল সম্পত্তিতে সাবেক দাগ ১২০, হাল দাগ ৩৩১,৩৩৭,৩৩৮ এই ৩ তিনটি দাগে মোখলেছার রহমানের দখল আছে। বর্তমানে মোখলেছার রহমানের ওয়ারিশগনের নামে ২৩৩ নং ডিপি খতিয়ান হয়েছে। উক্ত ডিপি খতিয়ানে সাবেক ৩৩৭ দাগে হাল ৫১৫ দাগে ২৫ শতক,সাবেক ৩৩৮ দাগে হাল ৫১৪ দাগে ১৮ শতক, সাবেক ৩৫৮ দাগে হাল ৫১২ দাগে ৫৫ শতক সম্পতিতে মালিকানা এবং দখল মোখলেছার রহমানের ওয়ারিশগনদের রয়েছে এবং দখল দৃষ্টে ডিপি খতিয়ান প্রস্তুত হয়েছে।
অত্র আব্দুল কাদের এর নামে ৩৩৭/৫১৫ দাগে ১৭ শতক,৩৩৮/৫১৪ দাগে ১২ শতক , ৩৫৮/৫০৭ দাগে ৩৫ শতক, ৫০৮দাগে ২৮ শতক,৫১১ দাগে ২০ শতক। এই সম্পতির আব্দুল কাদেরের নামে ১০২ নং ডিপি খতিয়ান প্রস্তুত হয়েছে।
ঐ আব্দুল কাদের ১০২ নং ডিপি খতিয়ানের বহির্ভূত সম্পত্তি মৃত: মোখলেছার রহমানের ওয়ারিশগনের সম্পত্তি নিজের বলে দাবি করছে বে- দখল করার হুমকি প্রদর্শন করছে।
এমতাবস্থায় তিনি ও তার পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় দিন অতিবাহিত করছে। তিনি বগুড়া পুলিশ সুপার সহ প্রশাসনের নিকট তার জমি বে-দখলের পাঁয়তারা বন্ধ এবং সে ও তার পরিবারের নিরাপত্তার জন্য জোর দাবী জানান।
কাহালুর চিহ্নিত ভূমিদস্যু, সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ ও মামলাবাজের বিরূদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে। গতকাল রবিবার সকাল ১১.৩০ টায় বগুড়া প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন কাহলু উপজেলার মুরইল ইউনিয়নের যাত্রশুল গ্রামের মৃত মোখলেছার রহমান এর পুত্র মো: আবুল কালাম আজাদ। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, যে তার চাচা একই এলাকার মৃত-মুনছুর আলীর ছেলে মো: আব্দুল কাদের একজন চিহ্নিত ভূমিদস্যু, সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ ও মামলাবাজ বটে। হেন কাজ নাই তার দ্বারা সম্ভব নয়। উক্ত কাদের ও এলাকার চিহ্নিত সস্ত্রাসিরা তার বগুড়া জেলা জজ আদালত থেকে ডিক্রি প্রাপ্ত জায়গা দখলের জন্য ক্রমাগত হুমকি ধামকি দিয়ে আসছে। সে আরো জানাই জেলা বগুড়ার ১ম যুগ্ন জজ আদালত মোকদ্দমান নং ২৪৩/৬২ বন্টন বাদী- আবু সাইদ দিং ও বিবাদী মোখলেছার রহমান দিং উপরোক্ত নম্বর মোকদ্দমাটি দাখিল হয়েছিল ১৫-১২-১৯৬২ উক্ত মোকদ্দমার নং বিবাদী মোখলেছার রহমান এবং ৩ নং বিবাদী ছিল। বিগত ইং ১৩-০৮-১৯৬৪ তারিখে প্রাথমিক ডিক্রী হয়। উক্ত প্রাথমিক ডিক্রী অনুযায়ী কমিশনার রিপোর্ট অনুযায়ী ছাহাম চিঠা তৈয়ার হয়। তৎপর উক্ত ছাহাম চিঠাতে ১/৩/৫ ও ৭ নং বিবাদী ছাহাম প্রাপ্ত হয়। উক্ত ফিল্ড বুক ডিক্রীর একাংশবলে গন্য হয়েছে। উক্ত ফিল্ড বুকের (ঘ) তপশীল সম্পত্তিতে সাবেক দাগ ১২০, হাল দাগ ৩৩১,৩৩৭,৩৩৮ এই ৩ তিনটি দাগে মোখলেছার রহমানের দখল আছে। বর্তমানে মোখলেছার রহমানের ওয়ারিশগনের নামে ২৩৩ নং ডিপি খতিয়ান হয়েছে। উক্ত ডিপি খতিয়ানে সাবেক ৩৩৭ দাগে হাল ৫১৫ দাগে ২৫ শতক,সাবেক ৩৩৮ দাগে হাল ৫১৪ দাগে ১৮ শতক, সাবেক ৩৫৮ দাগে হাল ৫১২ দাগে ৫৫ শতক সম্পতিতে মালিকানা এবং দখল মোখলেছার রহমানের ওয়ারিশগনদের রয়েছে এবং দখল দৃষ্টে ডিপি খতিয়ান প্রস্তুত হয়েছে।
অত্র আব্দুল কাদের এর নামে ৩৩৭/৫১৫ দাগে ১৭ শতক,৩৩৮/৫১৪ দাগে ১২ শতক, ৩৫৮/৫০৭ দাগে ৩৫ শতক, ৫০৮দাগে ২৮ শতক,৫১১ দাগে ২০ শতক। এই সম্পতির আব্দুল কাদেরের নামে ১০২ নং ডিপি খতিয়ান প্রস্তুত হয়েছে।
ঐ আব্দুল কাদের ১০২ নং ডিপি খতিয়ানের বহির্ভূত সম্পত্তি মৃত: মোখলেছার রহমানের ওয়ারিশগনের সম্পত্তি নিজের বলে দাবি করছে বে- দখল করার হুমকি প্রদর্শন করছে।
এমতাবস্থায় তিনি ও তার পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় দিন অতিবাহিত করছে। তিনি বগুড়া পুলিশ সুপার সহ প্রশাসনের নিকট তার জমি বে-দখলের পাঁয়তারা বন্ধ এবং সে ও তার পরিবারের নিরাপত্তার জন্য জোর দাবী জানান।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন