বগুড়া সংবাদ ডট কম (মহাস্থান প্রতিনিধি এস আই সুমন) : বগুড়ার মাটিডালী কালিবালায় করতোয়া নদী থেকে রীনা (৩৭)নামের এক নারী মাদক ব্যবসায়ীর ভাসমান মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার দুপুরে বগুড়া সদরের মাটিডালী কালিবালা এলাকার একটি সেতুর নিকট থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। সে চকসুত্রাপুর এলাকার কুখ্যাত মাদক সম্রাজ্ঞী এজেদা বেগম ওরফে এজেদা পাগলীর বড় মেয়ে এবং মুক্তারের স্ত্রী রীনা বলে প্রাথমিক ভাবে নিশ্চিত হওয়া গেছে। এদিকে তৎক্ষনাত ভাবে পুলিশের কাছ থেকে এ বিষয়ে কোন মন্তব্য পাওয়া যায়নি। প্রাথমিক ভাবে পুলিশ বলছে উদ্ধারকৃত মরদেহটি অপরিচিত নারীর। তার মৃত্যুর কারন সম্পর্কেও তারা কোন ধারনা দিতে পারেনি। অন্যদিকে দুপুরে নিহতের পরিবারের দু’একজন সদস্য এবং এলাকাবাসী ওই মরদেহ সনাক্ত করে সাংবাদিকদের জানিয়েছে সেটি রীনার’ই মরদেহ। তারা আরো জানান,গত মঙ্গলবার রাত আনুমানিক পোনে১২টার দিকে রীনাকে তার চকসুত্রাপুর এলাকার বাড়ী থেকে কে বা কারা তুলে নিয়ে যায়। তবে তারা কারা ছিল সে বিষয়টি স্পষ্ট নয় এখনো। এর সত্যতা সমপর্কে নিশ্চিত হওয়া যায়নি। পরে বুধবার দুপুরে বগুড়া শহরেরর উপকন্ঠে মাটিডালী কালিবাল এলাকায় সেতুর সন্নিকটের করতোয়া নদী থেকে তার মরদেহ উদ্ধার হয়। তবে পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছে নিহতের লাশ খুব বাজে ভাবে ফুলে গেছে এবং চেহারাও বিকৃত হয়ে গেছে। এটি হত্যাকান্ড কি না তা স্পষ্ট নয়। তাকে কাঁদায় ডুবিয়ে এবং পানিতে চুবিয়ে মারা হয়ে থাকতে পারে এমনটি ধারনা করা হচ্ছে। তবে এ ব্যপারে সুরতহাল তৈরীকারী পুলিশের এস আই গাউছ উল আযমের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান লাশের ময়না তদন্ত ছাড়া কিছুই বলা যাবে না এটি হত্যা না আত্নহত্যা।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন