বগুড়া সংবাদ ডট কম (আদমদীঘি প্রতিনিধি সাগর খান) : সোমবার সকালে বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহার রেলওয়ে রেষ্ট হাউজের সামনে রেল লাইনের উপর থেকে গলায় ফাঁস দিয়ে হত্যা করা এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে সান্তাহার রেলওয়ে জিআরপি থানা পুলিশ। হত্যার শিকার যুবকের নাম আলম হোসেন সজিব (২২)। সে মায়ের সাথে সান্তাহার পৌর শহরে ইয়ার্ড কলোনী এলাকার রেলওয়ে কোয়াটারে বসবাস করতো। তার বাবা রেলওয়ে চাকরিজীবি হলেও তিনি স্ত্রী-সন্তানদের কোন খোঁজ খবর রাখতেন না বলে জানিয়েছেন নিহত আলমের মা ও নজরুল ইসলামের দ্বিতীয় স্ত্রী বিলকিস বেগম।
জানা গেছে, আলম হোসেন মৌসুমী নানা পন্যের ক্ষুদ্র ব্যবসা করতেন। কিন্তু রোজগার কম হবার কারনে সে গত রোজার ঈদের পর বেশী রোজগার জন্য ঢাকা চলে যায়। প্রায় আড়াই মাস পর সে ঢাকা থেকে মায়ের নিকট ফিরছিল। ট্রেন থেকে নেমে বাড়িতে যাবার সময় কে বা কারা টাকার লোভে আলম হোসেন কে হত্যা করে রেল লাইনে ফেলে গেছে বলে দাবী করেছেন তার মা বিলকিস বেগম। সোমবার সকাল ৯ টার দিকে সান্তাহার রেলওয়ে জিআরপি থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নওগাঁ মর্গে পাঠিয়েছে। এ ব্যাপারে রেলওয়ে জিআরপি থানার অফিসার ইনচার্জ আকবর হোসেন বলেন, প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে তাকে গলায় দড়ির ফাঁস দিয়ে হত্যা করা হয়েছে। তবে ময়না তদন্তের রির্পোট পেলে প্রকৃত হত্যার রহস্য পাওয়া যাবে। তবে এ ব্যাপারে জিআরপি থানা একটি হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছিল।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন