বগুড়া সংবাদ ডট কম: জন্মদিন উপলক্ষে মদপান করতে গিয়ে সরকার দলীয় এক নেতার নামে বরাদ্দকৃত মদে ভাগ বসানোকে কেন্দ্র করে খুন হয়েছেন পুলিশের তালিকা ভুক্ত সন্ত্রাসী শাকিল ওরফে পা কাটা শাকিল। খুনের সঙ্গে জড়িতদের ইতোমধ্যেই শনাক্ত করেছে পুলিশ। তাদেরকে আটক করতে রাতভর অভিযান চালিয়েছে থানা ও ডিবি পুলিশের একাধিক টিম।

পুলিশের একাধিক সূত্র এসব তথ্য নিশ্চিত করে জানান, শুক্রবার (৮ সেপ্টেম্বর) সন্ত্রাসী শাকিলের জন্মদিন ছিল। সন্ধ্যায় শাকিলের বাসায় জন্মদিনের কেক কাটা অনুষ্ঠান শেষ হয়। পরে রাত ৯টার দিকে দুইটি মোটরসাইকেলযোগে শাকিলসহ তার ৬ বন্ধু শহরের চকসুত্রাপুর সুইপার পট্টিতে মদ পান করতে যান। মদপান শেষে সুইপার পট্টি থেকে বের হচ্ছিলেন তারা। একই সময় এক যুবক দুই বোতল মদ নিয়ে সেখান থেকে বের হচ্ছিল। এ সময় শাকিল ওই মদে ভাগ বসাতে চায়। নেতার জন্য মদ নিয়ে যাওয়া হচ্ছে বলা হলেও শাকিল ওই মদ কেড়ে নেয়। এর কিছুক্ষণ পর ১০-১২ জন দুর্বৃত্ত এসে তাদের ওপর হামলা চালায়।
এ সময় অন্যরা মোটরসাইকেল নিয়ে পালিয়ে গেলেও শাকিল ও বিশালকে কুপিয়ে জখম করে দুর্বৃত্তরা। পরে মিশু নামে এক বন্ধু তাদের মোটরসাইকেলে উঠিয়ে হাসপাতালে না নিয়ে গিয়ে সদর থানায় যায়। এ সময় পুলিশ মিশুকে আটক করে আহত দুইজনকে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। কিন্তু সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক শাকিলকে মৃত ঘোষণা করেন।
বগুড়া সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী জানান, মদপান করতে গিয়ে বিরোধ নিয়ে খুনের ঘটনা ঘটে। বিশাল ও শাকিলের বন্ধু মিশুকে পুলিশি হেফাজতে রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।
Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন