বগুড়া সংবাদ ডট কম (ইমরান হোসেন ইমন, ধুনট (বগুড়া) প্রতিনিধি:বগুড়ার ধুনটে চাঁদা না পেয়ে ব্যবসায়ী ও তার অন্তসত্তা স্ত্রীকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় এক ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে। এবিষয়ে বিলচাপড়ী গ্রামের ব্যবসায়ী আবুল হোসেন বাদী হয়ে এলাঙ্গী ইউনিয়ন পরিষদের ১নং ওয়ার্ড সদস্য আব্দুর রশিদ সহ ৪জনের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ ও স্থানীয়সূত্রে জানাগেছে, ঢাকার মোহাম্মদপুর এলাকার মৃত ডা: আব্দুল মহিমের ছেলে বিসিএস ক্যাডার আবুল হোসেন গত ৪ বছর আগে ধুনট উপজেলার বিলচাপড়ী গ্রামের ইদ্রিস আলীর মেয়ে আতিকা আক্তার রনিকে বিয়ে করেন। এরপর সে তার শ্বশুর বাড়ীর পাশেই বসতবাড়ী নির্মান করে বিলচাপড়ী বাজারে মুদির দোকান দিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে আসছে। কিন্তু দীর্ঘদিন যাবত এলাঙ্গী ইউনিয়ন পরিষদের ১নং ওয়ার্ড সদস্য আব্দুর রশিদ ও তার লোকজন ওই ব্যবসায়ীর কাছে ১ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে আসছিল।

গত ২ আগষ্ট ইউপি সদস্য আব্দুর রশিদ ও তার লোকজন আবারও চাঁদা নিতে গেলে ব্যবসায়ী আবুল হোসেন চাঁদা দিতে অস্বীকার করে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ইউপি সদস্য আব্দুর রশিদ ও আব্দুল আলিম সহ তাদের লোকজন ব্যবসায়ী আবুল হোসেনকে মারধর করতে থাকে। এসময় বাধা দিতে গেলে তার অন্তসত্তা স্ত্রী আতিকা আক্তার রনিকেও লাথি মেরে মাটিতে ফেলে দেয়। পরে স্থানীয় লোকজন ঘটনাস্থলে পৌছালে ইউপি সদস্য ও তার লোকজন পালিয়ে যায়। এঘটনায় রবিবার বিকালে ব্যবসায়ী আবুল হোসেন বাদী হয়ে ইউপি সদস্য আব্দুর রশিদ, আব্দুল আলিম, আব্দুর রউফ ও রবিন ইসলামকে আসামী করে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

ধুনট থানার এসআই মন্তাজ আলী জানান, ব্যবসায়ী ও তার স্ত্রীকে মারধরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এবিষয়ে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন