বগুড়া সংবাদ ডট কম (নামুজা প্রতিনিধি আনোয়ার হোসেন) : বগুড়ার শিবগঞ্জসহ কয়েকটি থানায় একাধিক মামলায় সাজা প্রাপ্ত ও ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামী আলোচিত প্রতারক আতাউল গণি অবশেষে পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছে। জানা যায়, শিবগঞ্জ থানার এসআই মুক্তার হোসেন সঙ্গীয় ফোর্সসহ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ৩ আগস্ট শুক্রবার দুপুরে শিবগঞ্জ উপজেলার বুড়িগঞ্জ ইউনিয়নের খরকোনা গ্রামের বাবর আলীর পুত্র আতাউল গণিকে নিজ বাড়ী থেকে গ্রেফতার করে। পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, আতাউল গণি পরিবার পরিকল্পনা উপজেলা অফিসের একজন অফিস সহায়ক কর্মচারী। তিনি বগুড়া, দুপচাঁচিয়া ও নওগাঁর পত্নীতলায় চাকরি করা কালিন বিভিন্ন জনকে চাকুরি দেওয়া এবং বিদেশ পাঠানোর লোভ দেখিয়ে ৫০/৬০ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়ে এলাকা ছেড়ে উধাও হয়ে যায়। এছাড়াও আতাউল গণি বিভিন্নভাবে জনগনের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়। টাকা প্রতারনার ঘটনায় শিবগঞ্জের মাঝিহট্ট ইউপির ভালুঞ্জা গ্রামের মেহেদী হাসান ও একই গ্রামের আব্দুর রশিদ আদালতে চেক জালিয়াতি এবং শিবগঞ্জের আটমুল ইউপির নান্দুড়া গ্রামের জনৈক মোজাহারুল ইসলাম বাদী হয়ে অর্থ আত্মসাতের পৃথক পৃথক মামলা করেন। একই ঘটনায় আদমদীঘি থানাতেও আতাউল গণির বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের ২টি মামলা হয়েছে। চেক ডিজঅনার হওয়ায় আদালত ২টি মামলায় সাজা ও বাড়ির মালামাল ক্রপের নিদের্শ ও বাঁকী মামলায় ওয়ারেন্ট বলবত রেখেছেন। উক্ত ওয়ারেন্ট মোতাবেক পুলিশ শুক্রবার তাকে গ্রেফতার করে। শিবগঞ্জ থানার ওসি অপারেশন জাহিদ হোসেন জানান, আতাউল গণির বিরুদ্ধে টাকা আত্মসাতসহ একাধিক অপরাধের অভিযোগ আছে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন