বগুড়া সংবাদ ডট কম (আবু রায়হান, দুপচাঁচিয়া (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ: বগুড়ার দুপচাঁচিয়ায় আবিদ হাসান ফাহিন নামের ৪মাসের শিশুকে বৃহস্পতিবার তার চাচী পুকুরের পানিতে ফেলে দিয়ে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। নিহত ফাহিন উপজেলার মর্তুজাপুর খাঁপাড়ার আশরাফুল ইসলামের ছেলে। এ ঘটনায় ওইদিন সন্ধ্যায় আশরাফুল ইসলাম বাদী হয়ে দুপচাঁচিয়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

থানা সূত্রে জানা গেছে, ঘটনারদিন উপজেলার জিয়ানগর ইউনিয়নের মর্তুজাপুর খাঁপাড়ার আশরাফুল ইসলামের ছেলে ফাহিনকে দুপুরে বারান্দায় দোলনায় শুইয়ে রেখে তার মা রান্না ঘরে কাজ করছিলেন।

একটু পরে তিনি এসে দেখেন তার ছেলে দোলনায় নেই। ফাহিনের বাবা-মামা সহ পরিবারের লোকজন ফাহিন নিখোঁজের উৎকণ্ঠায় গ্রামের লোকজনদের নিয়ে খোঁজা খুঁজি করতে থাকেন। দুপুর প্রায় ২.৩০মিনিটের দিকে গ্রামের লোকজন বাড়ির পার্শ্বে জনৈক মুনছুরের পুকুরের পানিতে মৃত অবস্থায় ফাহিনকে উদ্ধার করে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ফাহিনের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। পরদিন শুক্রবার ফাহিনের লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে ময়না তদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছেন। ফাহিন নিহতের ঘটনায় সন্দেহ হলে পুলিশ তার চাচী ফরিদা বেগমকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসেন। জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে ফরিদা বেগম ফাহিনকে হত্যার কথা স্বীকার করেন।
দুপচাঁচিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) আব্দুর রাজ্জাক বলেন, ফাহিন নিহতের ঘটনায় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তার বাবা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। এ ঘটনায় ফাহিনের চাচী ফরিদা বেগমকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তিনি পুলিশের কাছে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন