বগুড়া সংবাদ ডটকম (আনোয়ার হোসেন, নামুজা (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার পিরব ইউনাইটেড ডিগ্রী কলেজের ঝারুদার রাজন স্ব-পদে চাকুরিতে বহালের জন্য বিভিন্ন দপ্তরে আবেদন। জানা যায়, পিরব ইউনাইটেড ডিগ্রী কলেজের ঝারুদার শ্রী রাজন একজন চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী হিসাবে কাজে যোগদান করিয়া দীর্ঘ দিন যাবৎ নিষ্ঠা ও সততার সহিদ কাজ করিয়া আসিতেছিল।

হঠাৎ করে তার পারিবারিক জটিলতার কারণে সে বেশ কিছু দিন কাজে অনুপস্থিত থাকায় বিগত ২১/০৫/২০১৮ ইং তারিখে উক্ত কলেজের কাজে যোগদান করার জন্য একটি দরখাস্ত দাখিল করে। এছাড়াও শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসারসহ বিভিন্ন দপ্তরেও উক্ত দরখাস্ত দাখিল করা হয়।

এমতাবস্থায় ঝারুদার শ্রী রাজন কলেজের কাজ নিয়মিত চালিয়ে যাচ্ছিল। গত ১৭ জুলাই কলেজের হাজিরা খাতায় শ্রী রাজন স্বাক্ষর করতে গেলে, কলেজ কর্র্তৃপক্ষ তাকে স্বাক্ষর করতে দেয়নি। এমন সময় শ্রী রাজন কলেজ থেকে বাসায় ফেরার পথে কলেজের সাবেক গভর্নিং বডির সদস্য আমজাদ হোসেনের সঙ্গে কথা কাটা-কাটির এক পর্যায়ে দুই জনের মধ্যে ধস্তা-ধস্তি ও অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে। রাজন জানান, এমপিও সীটে তার বেতন আসলেও তাকে উত্তোলণ করতে দেওয়া হচ্ছে না।

তিনি আরোও জানান, কৌশলগত ভাবে তাকে চাকুরি হইতে আড়াল করে জনৈক রবিউল ইসলাম নামের ব্যক্তির নিকট থেকে সাড়ে ৮ লক্ষ টাকা নিয়ে চাকুরি দেওয়ার অপচেষ্টায় লিপ্ত আছেন। রাজনের চাকুরির ব্যাপারে কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মাহফুজার রহমান জানান, সে দীর্ঘ দিন কলেজে অনুপস্থিত থাকায় ঝারুদার পদে রবিউল ইসলাম নামের অন্যকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

সাবেক গভর্নিং বডির সদস্য আমজাদ হোসেনের সঙ্গে রাজনের অপ্রীতিকর ঘটনা বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে তিনি জানন, ঘটনাটির বিষয়ে শুনেছি, তবে ঘটনাটি কলেজের বাহিরের ঘটনা। এই ঝারুদার পদে সাড়ে ৮ লক্ষ টাকা নিয়ে নিয়োগ দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে জানতে চাওয়া হলে তিনি জানান, এ কথাটি সঠিক না।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন