বগুড়া সংবাদ ডট কম (আনোয়ার হোসেন, নামুজা প্রতিনিধি): বগুড়ার প্রস্তাবিত নামুজা থানা এলাকায় বালকদের দ্রুত গতিতে বাইক চালানোর প্রবনতা দিন দিন বৃদ্ধি অতঃপর প্রতিনিহত ঘটছে দূর্ঘটনা সচেতন মহল চিন্তিত। অনুসন্ধানে জানা যায়, প্রস্তাবিত নামুজা থানার ৫টি ইউনিয়ন যথাক্রমে: নামুজা, বুড়িগঞ্জ, পিরব, মাঝিহট্ট ও পাইকড় এইসব ইউনিয়নের বিভিন্ন ঐতিহাসিক স্থান সমূহ সড়ক গুলোতে স্কুল/কলেজগামী বালকদের হরেক রকমের বাহারি নাম্বার বিহীণ দ্রুতগামী মটর সাইকেল-এ সরকারি আইন কানুনকে তোয়াক্কা না করে ৩-৪ জন চড়ে দ্রুত গতিতে চালানোর ঘটনা অহরহ। তাদের বেপড়োয়া ভাবে মটর সাইকেল চালানোর ফলশ্রুতিতে দূর্ঘটনার ঘটনাও ঘটছে অহরহ। এছাড়া বালকদের বেপরয়া মটর সাইকেল চালানোর দৃশ্যমান স্পট হিসাবে চোখে পড়ে, স্কুল-কলেজের প্রধান ফটোকের সামনে ও সড়কে। এছাড়া শিশুদের বিনোদন স্পট ঐতিহাসিক স্থানগুলোতে যেমন, গৌতম বুদ্ধের স্মৃতি বিজড়িত ভাসুবিহার, মাঝিহট্ট ইউপির দামগাড়া সৈয়দ মিনার মাজার সড়ক, পিরবের একাব্বর আলী বাবার মাজার সড়ক, পাইড়ক ইউপির আড়োলা যুগির ভবণ এলাকা, গোকুল ইউপির বেহুলা লক্ষিন্দরের বাসর ঘর এলাকা, নামুজা ইউপির মথুরা কালিদহ সাগর সংলগ্ন সড়ক এলাকায় এইসব দ্রুতগামী মটর সাইকেল চালানো চোখে পড়ার মতো। আবার কোন কোন সময়ে দেখা যায় এসব মটর সাইকেল চালাকেরা মরণ নিষা ইয়াবা, হেরোইন, ফেন্সিডিল, গাঁজা সেবন করে থাকে। উক্ত স্থান গুলোতে সরকারি আইন প্রয়োগকারী সংস্থার নজরদারী দেওয়ার দাবী জানান সচেতন মহল।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন