বগুড়া সংবাদ ডট কম (দুপচাঁচিয়া প্রতিনিধি আবু রায়হান) : দুপচাঁচিয়া উপজেলার সদর ইউনিয়নের তেঁতুলিয়া গ্রামের জনৈক ফয়েজ উদ্দিনের ছেলে ও দুপচাঁচিয়া বিয়াম ল্যাবরেটরী স্কুল এন্ড কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র প্রেমিক হুমায়ন কবির(১৮) এর বাড়িতে বিয়ের দাবীতে উপজেলার গুনাহার ইউনিয়নের ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের কাতার প্রবাসী আমিনুর রহমানের মেয়ে করমজী উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণির ছাত্রী মঙ্গলবার দুপুর থেকে অবস্থান নিয়েছে। এ ঘটনার পরপরই প্রেমিক হুমায়ুন বাড়ি থেকে লাপাত্তা হয়েছে।

সরেজমিনে ওই গ্রামে গিয়ে জানা যায়, হুমায়ুন কবিরের সঙ্গে ওই স্কুল ছাত্রীর দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এরপর প্রেমিক তার প্রেমিকাকে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে দৈহিক সম্পর্ক স্থাপন করে। কিন্তু পরবর্তীতে প্রেমিক হুমায়ুন প্রেমিকাকে বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানালে ঘটনারদিন ওই ছাত্রী প্রেমিকের বাড়িতে প্রবেশ করে অবস্থান নিয়েছে। ওই ছাত্রী তার প্রেমিক হুমায়ুন কবিরের সাথে প্রেমের সম্পর্ক সহ দৈহিক সম্পর্ক স্থাপন হওয়ার কথা ওই গ্রামবাসীর সামনে স্বীকার করেছে।

ওই স্কুল ছাত্রীর মাতা মুঠোফোনে জানান, ওই ছেলের সঙ্গে আমার মেয়ের সম্পর্কের কথা জেনেছি। পরবর্তীতে এ বিষয়ে ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যানকেউ জানিয়েছি। তবে চেয়ারম্যান অসুস্থ্য হয়ে বগুড়ায় আছেন বলে আমাকে জানিয়েছেন। এ অবস্থায় আমার মেয়েকে তো অন্য কোথাও বিয়ে দিতে পারবো না। তাই ওই ছেলের সঙ্গেই আমি আমার মেয়ের বিয়ের দাবী জানাচ্ছি।

ওই ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য হারেজ উদ্দিন মুঠোফোনে জানান, প্রেমিক হুমায়ুনের বাড়িতে ওই মেয়েটি অবস্থান নিয়েছে বলে আমাকে জানানো হয়েছে। রাতে এ ব্যাপারে একটি বৈঠকের কথা লোকমুখে শুনেছি। তবে ছেলে পক্ষের কেউই বিষয়টি আমাকে জানাইনি।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন