বগুড়া সংবাদ ডট কম (আদমদীঘি প্রতিনিধি সাগর খান) : বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার সদর ইউনিয়নের অবহেলিত কেশরতা গ্রামের দেড় কিলোমিটার রাস্তাটি দীর্ঘ দিন সংস্কার না করায় পাকা কংক্রিট উঠে বেহাল দশায় পরিণিত হয়েছে। ব্যবহারের অযোগ্য এই রাস্তা দিয়ে যানবাহন সহ সাধারণের চলাচলে মারাত্বক ঝুঁকি হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই জনগুরুত্বপূর্ণ রাস্তাটি মেরামত কিংবা সংস্কার করার জন্য গ্রামের ভুক্তভোগিরা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের শুভ দৃষ্টি কামনা করছেন।
স্থানীয়রা জানান, উপজেলার সদর ইউনিয়নের কেশরতা গ্রামে তাঁত সহ বিভিন্ন পেশার লোকজনের একটি সু-প্রতিষ্ঠিত গ্রাম। এই গ্রামের যাতায়াতের জন্য স্বাধীনতার পর পর কুসুম্বী থেকে কেশরতা গ্রামে যাতায়াতের জন্য মাটি কেটে প্রায় ৫ কিলোমিটার একটি কাঁচা রাস্তা নির্মাণ করা হয়। বিগত ২০০৩ সালে ওই গ্রামের মানুষ সহ যানবাহন চলাচলের জন্য স্থানীয় সরকার কর্তৃক রাস্তার প্রায় দেড় কিলোমিটার পর্যন্ত পাকা করণ করা হয়। অবশিষ্ট রাস্তা এখনোও পর্যন্ত পাকা করণ করা হয়নি। তবে ইউনিয়ন পরিষদের ক্ষুদ্র বরাদ্দ থেকে অবশিষ্ট কাঁচা রাস্তায় ইট সোলিং এর কাজ করা হয়েছে। আর ওই দেড় কিলোমিটার কার্পেটিং রাস্তা দীর্ঘদিন যাবৎ সংস্কার কিংবা মেরামত না করার কারণে কংক্রিট উঠে গিয়ে বেহাল দশায় পরিণিত হয়েছে। ফলে যাতায়াতে ভোগান্তিতে পড়েছেন গ্রামের স্কুল ও কলেজ গামী ছেলে-মেয়ে সহ গ্রামের জনসাধারণরা। এ ব্যাপারে আদমদীঘি উপজেলা প্রকৌশলী বিভাগ জানান, প্রয়োজনীয় বরাদ্দ পাওয়া গেলে সংস্কার করা হবে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন