বগুড়া সংবাদ ডট কম (জিয়াউর রহমান, শাজাহানপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি ঃ বগুড়ার শাজাহানপুরে চাঁদা না পেয়ে মর্জিনা বেওয়া (৬২) নামে এক বিধবা বৃদ্ধার বসতবাড়ি ভাংচুর করেছে মিঠু মিয়া (৪০) নামে বিএনপির এক নেতা। মিঠু মিয়া বগুড়া পৌরসভার ১৩ নং ওয়ার্ড বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক। এঘটনায় ওই বিধবা বৃদ্ধা শাজাহানপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বেতগাড়ী মৌজার বনানী সুলতানগঞ্জ হাটের দক্ষিন পাশে স্বামীর ওয়ারিশ সূত্রে পাাওয়া ১১ শতক জমির উপর যাবত বসতবাড়ি নির্মাণ করে বসবাস করে আসছেন। বসতবাড়ির সাথে আরো একটি নতুন টিনের ঘর নির্মাণ করতে ধরলে গন্ডগ্রাম নয়াপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল হামিদের পুত্র মিঠু মিয়া ১ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবী করে।

চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে শুক্রবার সন্ধা সাড়ে ৭টার দিকে মিঠু তার দলবল সহ ধারালো অস্ত্র ও লাঠিসোটা নিয়ে এসে বাড়িঘর ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেয়। বাঁধা দিতে গেলে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেয় এবং মামলা না করতে বিভিন্ন ধরনের ভয় ভীতি দেখায়। এর আগেও বসতবাড়ি নির্মানের সময় মিঠু বাহিনী ৫০ হাজার টাকা চাঁদা নিয়ে ছিলো। এঘটনায় শনিবার মর্জিনা বেওয়া বাদি হয়ে মিঠু মিয়া সহ ৫ জনকে বিবাদী করে শাজাহানপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

মর্জিনা বেওয়া জানান, অভিযোগ দেয়ার পরও পুলিশ কোন প্রকার ব্যবস্থা না নিয়ে উল্টো বিবাদীদের সাথে যোগসাজসে ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করছে। এমতাবস্থায় চাঁদাবাজদের হুমকি-ধামকিতে জীবনের নিরাপত্বাহীনতায় ভুগছেন বলেও জানান তিনি।

শাজাহানপুর থানার ওসি জিয়া লতিফুল ইসলাম যোগসাজসের কথা অস্বীকার করে জানান, ভাংচুরের অভিযোগ পেয়েছি। বগুড়া পৌরসভার পক্ষ থেকেও আরো একটি এজাহার দায়ের করা হয়েছে। ভাংচুরের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। যোগসাজসের কোন বিষয় নয়। পৌরসভার সাথে জায়গা জমি নিয়ে দ্বন্দ। জায়গাটি পৌরসভার হলে সংশ্লীষ্ট প্রশাসন বিষয়টি দেখবেন।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন