বগুড়া সংবাদ ডট কমঃ (আবু রায়হান, দুপচাঁচিয়া প্রতিনিধিঃ দুপচাঁচিয়া উপজেলার তালোড়া ফেঁপিড়া গ্রামে গতকাল সোমবার বিকালে চড়ক খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গ্রামের রক্ষাকালী মন্দির চত্বরে এ খেলার আয়োজন করে ফেঁপিড়া জুনিয়র কল্যান সমিতি। ফেঁপিড়া জুনিয়র কল্যান সমিতির আয়োজনে চড়ক পূজা অনুষ্ঠিত হয়।
এবার নওগাঁর রানীনগরের শিবের মাধাইমুড়ি গ্রামের প্রদীপ কুমার সন্নাসীর দল চড়ক খেলা পরিবেশন করেন।

প্রদীপ কুমার সন্নাসী বলেন, ১৫ দিন আগের শনিবারে এ মন্দিরে ঘট স্থাপন করা হয়। ঘটস্থাপনের সাত দিন পর গত শনিবার রাতে দেবী কালীর পূজা করা হয়। গত রোববার সকালে শ্মশান খেলা করা হয়। সোমবার বিকালে সন্যাসীর পিঠে মন্ত্রপাঠের মাধ্যমে লোহার বড়শী সদৃশ(কালা) ফুটিয়ে গাছের খাম্বার মাথায় দড়ি দিয়ে ঘুরানো হয়। প্রায় আধা ঘন্টা এ খেলা চলে। এর আগে একটি খাম্বা মাটিতে পুঁতে তার গোড়ায় সন্ন্যাসী পূজা অর্চনা করা হয়। এ পূজাকে চড়ক পূজা বলা হয়। চড়ক খেলা শেষে শিবপূজা করা হয়। তিনি বলেন, এ খেলায় ¯্রষ্টার প্রতি পূর্ণভক্তি রেখে বিভিন্ন দেবদেবীর পূজা অর্চনা ও মন্ত্রপাঠ করা হয়।

চড়ক খেলা দেখতে এসেছেন নওগাঁ জেলার মান্দা উপজেলার মিলন সরকার ও বগুড়া জেলার সোনাতলা উপজেলার সুমতি রানী। তারা বলেন, আগে চড়ক খেলা বিভিন্ন গ্রামে হতো। জীবনের ঝুঁকির কারণে এখন এ খেলা প্রায় উঠেই গেছে। এখানে প্রতি বছর হয় বলেই বছরে একবার এ খেলা দেখার জন্য আসি।

উল্লেখ্য এ চড়ক পূজা ও খেলা দেখার জন্য বিভিন্ন জেলার বিভিন্ন উপজেলা থেকে শত শত নারী পুরুষ ভীড় জমায়। এ খেলা উপলক্ষে ওই গ্রামে মেলাও বসে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন