বগুড়া সংবাদ ডট কম (শাজাহানপুর প্রতিনিধি জিয়াউর রহমান) : বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলার আমরুল ইউনিয়নের রাজারামপুর গ্রামে জমি-সংক্রান্ত বিরোধের জেরে শনিবার ঈদের দিন ফরহাদ হোসেন সরকার বাদশাকে পিটিয়ে জখম ও তার বাড়ি ভাংচুর করার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনার পরে বুধবার বাড়ির সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করা নিয়ে উত্তেজনা বিরাজ করলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করে কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছেন। বর্তমানে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ কাজ বন্ধ থাকলেও ওই এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে এবং যেকোন সময় সংঘর্ষ ঘটতে পারে। এবিষয়ে ফরহাদ হোসেন বাদশা বাদী হয়ে একই গ্রামের ৭জনকে আসামী করে শাজাহানপুর থানায় এজাহার জমা দিয়েছেন।
এজাহারে অভিযুক্তরা হলেন, মারিফুজ্জামান বাবু(৩০), মনিরুজ্জমান মিটু(৩০), টিটু সরকার(৩৫), মিনাজুল হক সরকার(৬৫), মনোয়ারা বেগম(৫৫), রিক্তা বেগম(৩৮) ও পাপিয়া সুলতানা সাথী((৩২)।
ঘটনাস্থল পরিদর্শনকারী শাজাহানপুর থানার এসআই রামজীবন ভৌমিক জানান, সংঘর্ষের আশংকায় বাড়ির সীমানা প্রাচীর নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন