বগুড়া সংবাদ ডট কম (শাজাহানপুর প্রতিনিধি জিয়াউর রহমান) : প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসামূলক কবিতা ফেসবুকে পোষ্ট করায় বগুড়ার শাজাহানপুরে মাদ্রাসা ছাত্র আবু তালহার মাথা ন্যাড়ার ঘটনা প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে ষড়যন্ত্র করা হয়েছে বলে দাবী করেছে স্থানীয়রা। এ বিষয়ে শুক্রবার বিকেলে সরেজমিন গিয়ে ভিকটিমের মুখে ঘটনার বিবরণ শুনলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. কামরুজ্জামান।
শুক্রবার বিকেলে ইউএনও মো. কামরুজ্জামান মাদ্রাসা ছাত্র আবু তালহার বাড়ি ডোমনপুকুর সোনারপাড়া গ্রামে উপস্থিত হলে আশপাশের কৌতুহলী লোকজন সেখানে ভিড় জমায়। এ সময় তার সাথে ছিলেন শাজাহানপুর থানার ওসি জিয়া লতিফুল ইসলাম, উপজেলা সহকারি মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর হাসান, ডোমনপুকুর আমিনিয়া কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ শাহাদত হোসেন, উপজেলা কৃষকলীগ সভাপতি আবুল কালাম আজাদ ঠান্ডাসহ স্থানীয় সাংবাদিকবৃন্দ। এর আগে গত বুধবার সন্ধ্যায় দলীয় নেতা-কর্মিদের সাথে নিয়ে মাদ্রাসা ছাত্র আবু তালহার খোঁজ খবর নিতে ডোমনপুকুর সোনারপাড়ায় যান শাজাহানপুর উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি রাকিবুল ইসলাম রঞ্জু। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আবু তালহার কয়েকজন প্রতিবেশী বলেছেন, ঘটনাটি রহস্যজনক। এ নিয়ে ধোঁয়াশার সৃষ্টি হয়েছে। আবু তালহার বোনের বিবাহ নিয়ে প্রতিবেশী শরিফুলের সাথে মনোমালিন্যতার ঘটনা ঘটেছিল। তাদের ধারণা পারিবারিক বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষকে হেনস্তা করতে এমন ঘটনা সাজানো হতে পারে।
ইউএনও মোঃ কামরুজ্জামান জানান, ভিকটিমের কাছে ঘটনার বিবরণ শোনা হয়েছে। পারিবারিক বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে মাথা ন্যাড়ার ঘটনা সাজানো হয়েছে বলে স্থানীয়দের এমন ধারনার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এই ধরনের কথা তিনি শুনেছেন। তদন্ত চলছে। তদন্ত শেষে প্রকৃত বিষয়টি জনাযাবে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন