বগুড়া সংবাদ ডট কম (শেরপুর প্রতিনিধি রায়হানুল ইসলাম) : নিখোঁজের তিন দিন পর অটোভ্যান চালকের হাত-পা বাঁধা গলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার (২০ জুন) রাত ১২ টার দিকে বগুড়া জেলার শেরপুর উপজেলার বিশালপুর ইউনিয়নের পাচঁদেউলী বেলতলা এলাকায় জমির আইল থেকে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় অটোভ্যান চালক মেরাজুল (১৭) এর লাশ উদ্ধার করা হয়।
নিহত মেরাজুল ইসলাম শেরপুর উপজেলার বিশালপুর ইউনিয়নের বড় পুকুরিয়া গ্রামের কৃষক ইউনুস আলীর বড় ছেলে।
নিহতের আত্মীয় আবু সাঈদ জানান, ঈদের পর দিন রোববার সন্ধ্যা ৭ টার দিকে জামাইল বাজার থেকে ৪ জন যাত্রী নিয়ে রাণীরহাট বাজারের উদ্দেশ্যে রওনা দেন অটোভ্যান চালক মেরাজুল। অটোভ্যান মালিক নিমাইয়ের নিকট থেকে ভ্যান নিয়ে ১৫০ টাকা ভাড়া ঠিক করে ৪ জন যাত্রী নিয়ে যাচ্ছিল মেরাজুল। এরপর থেকে তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন বন্ধ পেয়ে ও তার কোন সন্ধান না পেয়ে তার চাচা ইউসুফ আলী শেরপুর থানায় সোমবার সন্ধ্যায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেন।
বুধবার রাত ৯টার দিকে পাচঁদেউলী বেলতলা এলাকায় এলাকাবাসী হারানো গরু খুঁজতে গিয়ে ফাঁকা জমির আইলে মেরাজুলের হাত-পা ও গলায় লুঙ্গি বাঁধা অবস্থায় লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয়। এরপর শেরপুর থানা পুলিশ সেখানে গিয়ে রাত ১২ টার দিকে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।
শেরপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) বুলবুল ইসলাম জানান, লাশ গলিত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন