বগুড়া সংবাদ ডট কম (আদমদীঘি প্রতিনিধি সাগর খান) : বগুড়ার আদমদীঘিতে থেকে কলেজ ছাত্রী অপহরনের ৩ দিন পর নওগাঁর বদলগাছী থেকে পুলিশ উদ্ধার করেছে। এ ঘটনায় কলেজ ছাত্রীর চাচা আশরাফুল ইসলাম বাদী হয়ে গত মঙ্গলবার রাতে ৫জনের বিরুদ্ধে আদমদীঘি থানায় অপহরন মামলা দায়ের করেন। পুলিশ পাঁচবিবি উপজেলার দমদমা গ্রামের নিজাম উদ্দীনের ছেলে আরমান হোসেন (২৬) ও নওগাঁর বদলগাছীর রোকনপুর গ্রামের বছির উদ্দীনের ছেলে শফিকুল আলম সাবু (৫১) কে গ্রেফতার করে বুধবার দুপুরে বগুড়া আদালতে প্রেরন করেন।
পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, জয়পুরহাট জেলার পাঁচবিবি উপজেলার দমদমা গ্রামের নিজাম উদ্দীনের ছেলে আরমান হোসেন গত দুই মাস পূর্বে থেকে আদমদীঘির তালশন গ্রামের আশরাফুল ইসলামের ভাতিজি ও হাজী তাছের উদ্দীন মহিলা কলেজের এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী রুমা আক্তার (১৬) এর সাথে বিয়ের প্রলোভনে প্রেমের সর্ম্পক গড়ে তুলে। বিষয়টি রুমার পরিবারের লোকজন জানতে পেরে আরমান হোসেন ও তার পরিবারকে মোবাইল ফোনে নিষেধ করলে। তাদের যোগাযোগ বিছিন্ন হলে আরমান হোসেন ক্ষিপ্ত হয়ে পড়েন। গত ১৬ জুন সন্ধ্যায় ৭ টা তালশন গ্রামের জনৈক বাপ্পির বাড়ীর সামনে পাঁকা রাস্তার উপর কলেজ ছাত্রী রুমা হাঁটাহাটি করছিল এ সময় ওৎ পেতে থাকা আরমান, শফিকুল ও বর্ষন সহ অজ্ঞাত ২ জন ব্যাক্তি রুমার ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোড় পূর্বক সিএনজি যোগে অপহর করে নওগাঁর উদ্যেশে পালিয়ে যায়। বুধবার সকালে থানা পুলিশ রুমা কে উদ্ধার সহ অপরহনকারীদের গ্রেফতার করে। মামলার তদন্তকারী অফিসার এস আই মহাদেব জানায়, অপহৃতাকে উদ্ধার ও দুই অপহরনকারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন