বগুড়া সংবাদ ডট কম : বগুড়ায় বিস্কুট-কলার প্রলোভন দিয়ে ৭ বছরের শিশুকে বলাৎকারকারী নরপশু সেই নাঈমকে অবশেষে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃত লম্পট নাঈম বগুড়া শহরতলী ১৯ নং ওয়ার্ডের রাজাপুর মাঠপাড়া এলাকার জামাল সরদারের ছেলে। দীর্ঘদিন গা ঢাকা দেয়ার পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ফুলবাড়ী ফাঁড়ির পুলিশ তাকে তাঁর বাড়ির সামনে থেকে গ্রেফতার করে। সদর থানার মামলা সুত্রে জানাগেছে, সদরের রাজাপুর (মাঠপাড়া) এলাকার দিনমজুর জনৈক্য সামছুলের ছেলে (স্কুলপড়ুয়া ১ম শ্রেণির ছাত্র) ১লা মে (শনিবার) তাঁর খেলার সাথীদের নিয়ে দুপুরে বাড়ির সামনে মাঠের ধানক্ষেতে পানির পাম্পে গোসল করতে যায়। এসময় একই এলাকার জামাল উদ্দিন সরদারের লম্পট ছেলে নরপশু নাঈম (১৯) তাকে বিস্কুট-কলা খাওয়ার প্রলোভন দিয়ে রাজাপুর ঈদগাহ মাঠ সংলগ্ন কলার বাগানের ভিতর নিয়ে গিয়ে জোর পূর্বক বলাৎকার করে। এসময় অপর শিশু আরমান ওই শিশুর বাড়িতে গিয়ে তাঁর বাবাকে বলে, নাঈম তাকে বাগানের ভিতরে নিয়ে গেছে। ঘটনার পরপরই সামছুল এলাকার স্থানীয়দেরকে নিয়ে গিয়ে বাগানে তাঁর শিশুকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করায়। চিকিৎসা শেষে ওই শিশুটি এখন সুস্থ আছে বলে তাঁর পরিবারের সদস্যরা জানান। এ ঘটনার পর থেকেই এখনো ওই শিশুটি আতঙ্কে রয়েছে বলে তাঁর বাবা সাংবাদিকদের জানান। এদিকে ওই লম্পট’র পক্ষ থেকে মামলা তুলে নিতে নানা ভাবে হুমকি দেয়া হচ্ছে বলে অভিযোগকারী জানান। এ ব্যাপারে মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা ফুলবাড়ি ফাঁড়ির এস.আই শহিদুল ইসলাম জানান, আসামী নাঈমকে আদালতের মাধ্যমে জেলে প্রেরণ করা হয়েছে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন