বগুড়া সংবাদ ডট কম (সারিয়াকান্দি প্রতিনিধি রাহেনূর ইসলাম স্বাধীন) : তিনি একজন পুলিশ সুপার, তিনি একজন গরীবের বন্ধু, তিনি অন্যায়ের বিরুদ্ধে এক প্রতিবাদী কন্ঠস্বর, তিনি- হামিদুল আলম মিলন। হ্যা, দিনাজপুর পুলিশ সুপার হামিদুল আলমের কথা বলছি। সব সময় তিনি দেশের জন্য লড়ছেন। তার সব-সময় একটাই টার্গেট। আর তা হলো মাদক মুক্ত করা এই সমাজ, তথা এই দেশ।
তার সম্পর্কে কিছু বলতে আজ লিখতে বসলাম। লেখার আগে বলে রাখি, আমার বাবা’র মুখে শোনা কথাগুলো একত্র করেই আজকের লেখা।
ছোটবেলা থেকেই শুরু করি। সব সময় লেখা পড়া করতে ভালোবাসতেন আমাদের পুলিশ সুপার। লেখা-পড়ার পাশা-পাশি আকাশ ছোয়া বিশাল খেলার মাঠেও তার রাজত্ব ছিলো। মানে তিনি খেলতেও পছন্দ করতেন। বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে জন্মগ্রহন করা হামিদুল আলম এর ডাক নাম মিলন। ছোটবেলা থেকেই সাধারন মানুষের জন্য কিছু করার ইচ্ছে ছিলো তার।এই সেবার মনোভাবের জন্যই তিনি তার নিজ যোগ্যতায় বর্তমানে সেবার কাজে নিয়োজিত আছেন। তিনি দিন রাত এক করে দিয়ে কাজ করছেন সাধারন জনগনের জন্য।
এইতো কিছুদিন আগের কথা, দিনাজপুরে মাদকের বিরুদ্ধে জিরো ট্রলারেন্স ঘোষনা করার পর থেকেই তার তার নির্দেশে দিনাজপুরে মাদকের বিরুদ্ধে প্রায় অর্ধশত অভিযান পরিচালিত হয়। এ সকল অভিযান থেকে দিনাজপুর এখন অনেকটাই মাদকের ভয়াল গ্রাস থেকে মুক্তই বলা যায়। দিনাজপুরের ইতিহাসে এরকম পুলিশ সুপার চিরকাল স্বরণীয় হয়ে থাকবে।
ইচ্ছাশক্তি থাকলে মানুষ যে কোন সৎ কাজ করতে পারে এর জিবন্ত প্রমান হামিদুল আলম নিজেই। সারিয়াকান্দিবাসী আজ গর্বীত তার মতো একজন কৃতি সন্তানের জন্য।অতিতে জয়পুরহাট, মেহেরপুর এবং দিনাজপুরে তার সাফল্যর পদচারনার জন্য তিনি প্রজন্ম থেকে প্রজন্ম রোল মডেল হয়ে থাকবেন।
তার জন্য বগুড়া ও সারিয়াকান্দিবাসীর দোয়া করবে সব সময়।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন