বগুড়া সংবাদ ডটকম (ইমরান হোসেন ইমন, ধুনট প্রতিনিধি: বগুড়ার ধুনটে এক বিধবার ঘরবাড়ী ভাংচুরের পর উচ্ছেদের অভিযোগে সম্রাট হোসেন নামের এক ছাত্রলীগ নেতাকে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃত ওই ছাত্রলীগ নেতা গোসাইবাড়ী গ্রামের আমিনুল ইসলামের ছেলে এবং গোসাইবাড়ী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি। শনিবার বিকালে উপজেলার গোসাইবাড়ী বাজার এলাকা থেকে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করেছে।

স্থানীয়সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার গোসাইবাড়ী বাসষ্ট্যান্ড এলাকায় পাকা সড়কের পাশে সরকারী জায়গায় যমুনা ভাঙ্গনে নিঃস্ব হোসনে আরা পারভিন নামের এক বিধবা তার তিন কণ্যা সন্তান নিয়ে প্রায় ১৫ বছর যাবত ঘরবাড়ী নির্মান করে বসবাস করে আসছে। তবে হোসনে আরা পারভিনের বাড়ীর পাশেই এলাকার প্রভাবশালী গফুর ভাটের ছেলে বাদশাহ্ মিয়ার জমি রয়েছে। কিন্তু বাদশা মিয়া ওই নিজের দাবি করে দীর্ঘদিন যাবত হোসনে আর পারভিনের ঘরবাড়ী অন্যত্র সরিয়ে নিতে বিভিন্নভাবে হুমকি দিয়ে আসছিল।

বিধবা হোসনে আরা পারভিন সাংবাদিকদের জানান, গত শুক্রবার রাতে বাদশাহ মিয়া ধুনট উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক আবু সালেহ্ স্বপন ও গোসাইবাড়ী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সম্্রাট হোসেন সহ বেশ কিছু নেতাকর্মী নিয়ে তার বাড়ীতে অতর্কিতভাবে হামলা চালিয়ে ঘরবাড়ী ভাংচুর করে জিনিসপত্র লুটপাট করে। এঘটনায় হোসনে আরা পারভীন ওই রাতেই ধুনট থানায় একটি অভিযোগ দেয়।

শনিবার বিকালে পুলিশ ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে গোসাইবাড়ি ইউনিয়ন ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সম্রাটকে আটক করে।তবে উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক আবু সালেহ্ স্বপন তার বিরুদ্ধে বিধবার ঘরবাড়ী ভাংচুরের অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, এঘটনায় তিনি এবং তার কোন নেতাকর্মী জড়িত নয়।

ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খান মো: এরফান বলেন, বিধবার ঘরবাড়ী ভাংচুরের ঘটনায় একজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। এবিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন