বগুড়া সংবাদ ডটকম : বগুড়ায় অপরিপক্ক আম রাসায়নিক দিয়ে পাকানোর দায়ে রোববার শহরের দু’টি ফলের আড়ৎ থেকে ৭৪০ কেজি আম জব্দ করে ধ্বংস করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। একই সঙ্গে দু’টি আড়ৎ মালিকের ৩৫ হাজার টাকা জরিমানাও করা হয়। বগুড়া জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মমতাজ মহল গতকাল রবিবার বিকেলে শহরের স্টেশন রোডে প্রেসক্লাবের সামনের এলাকায় ওই আদালত পরিচালনা করেন। অভিযানকালে বগুড়া পৌরসভার স্বাস্থ্য পরিদর্শক শাহ্ আলীসহ পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মমতাজ মহল জানান, জনস্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকরভাবে আমগুলো রাসায়নিক দ্রব্য দ্বারা প্রক্রিয়াজাত করার প্রমাণ পাওয়ায় ভোক্তার অধিকার আইনের ৪৩ ধারায় সেগুলো জব্দ ও ধ্বংস করা হয়। তবে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানের খবর পেয়ে বেশ কয়েকটি দোকান বন্ধ করে দেওয়া হয়।
বগুড়া পৌরসভার স্বাস্থ্য পরিদর্শক শাহ্ আলী জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিকেল ৪টার দিকে ভ্রাম্যমাণ আদালত স্টেশন রোডে সোহাগ ফল ভান্ডারে যায়। সেখানে ইথোপেন নামে রাসানিয়ক দিয়ে অপরিপক্ক আম পাকানোর প্রমাণ পান। এরপর আদালত ওই আড়ৎ থেকে ৪০০ কেজি আম জব্দ করে। পরে ওই আড়ৎ মালিক সনাতন চন্দ্র দাসকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। এরপর আদালত মোশাররফ হোসেনের মালিকানাধীন পূজা ফল ভান্ডারে যান। সেখানেও অনুরূপভাবে রাসায়নিক মিশ্রিত ৩৪০ কেজি আম জব্দ এবং ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন। পরে জব্দ করা আমগুলো জনসম্মুখে বুলডোজার দিয়ে পিষিয়ে ধ্বংস করা হয়।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন