বগুড়া সংবাদ ডট কম (স্টাফ রিপোর্টারঃ বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলায় আটমুল ইউনিয়নের ডাবইর গ্রামে ধান ক্ষেতের মধ্যে ৪ জনকে গলা কেটে হত্যার সাথে জড়িত ৩ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ৬ মে দিবাগত রাতে জাকারিয়া, সাবরুল , হেলাল ও খবিরকে ডাবইর গ্রামের ধান ক্ষেতের মধ্যে হত্যা করা হয়।
এই হত্যাকান্ডের সাথে ৯ জন জড়িত বলে পুলিশের কাছে স্বীকারোক্তি দিয়েছে আটককৃতরা।

আটক ৩ জন হত্যার কথা স্বীকার করেছে বলে পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঞা তার কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিং-এ জানান। হত্যার সাথে জড়িতরা হলো শিবগঞ্জ উপজেলার কাঠগাড়া চকপাড়া গ্রামের রফিকুল শেখের পুত্র মোঃ জুয়েল শেখ(২৫), একই উপজেলার চন্দনপুর তালুকদারপাড়ার আব্দুস সামাদের পুত্র আবুল কালাম আজাদ(৪৮), একই উপজেলার ডাবইর গ্রামের আবু বক্কর এর পুত্র মোঃ রুবেল।

হত্যার পরিকল্পনা কারিদের স্বীকারোক্তিদের তথ্যের উদ্ধৃতি দিয়ে পুলিশ সুপার জানান, এই হত্যা কান্ডের সাথে জড়িত ছিলেন মোট ৯ জন। এদের মধ্যে তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়। অবশিষ্টদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

প্রেসব্রিফিং এ আরো জানান, আটক জুয়েল শেখ ও অন্য একজন , সরাসরি হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত। জুয়েল গ্রেফতার হলেও মুল হত্যাকারি অন্যজন একজনও গ্রেফতার হয়নি। তিনি আরও জনানা মাদক সেবন করার কথা বলে মোঃ জাকারিয়া ও সাবুলকে ডেকে আনে।মাদক সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে এই হত্যা সংঘটিত হয়। হতাকারি জুয়েল পুলিশকে জানায় জাকারিয়া ও সাবরুল মদক খাওয়ার কথা বলে তাাদের ডেকে আনে। তাদের মোবাইলে ডেকে আনা হলেও পুলিশ মোবাইল ট্রাকিং করেনি বলে পুলিশ সুপার জানান। ওই দিন হত্যাকারিরা অন্য কার কার সাথে কথা বলেছে মোবাইল ট্রাকিং করলে ধরা সম্ভব হতো এমনটি মনে করে এলাকাবাসি। হত্যাকারিরা ৩ দিন দিন ধরে হত্যার পরিকল্পনা করে বলে জানায় হত্যাকারিরা।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন