বগুড়া সংবাদ ডটকম (ইমরান হোসেন ইমন, ধুনট প্রতিনিধি: ) বগুড়ার ধুনটে মাথার চুল দিয়ে ১৩শ কেজি ওজনের গাড়ী পাকা রাস্তায় ৫শ মিটার টেনে নিয়ে গিয়ে এলাকায় আলোড়ন সৃষ্টি করেছেন ভটভটি চালক সুলতান। শুক্রবার দুপুর ১২টায় ধুনট পূর্বভরনশাহী গ্রামের বাইপাইস সড়কে ওই ভটভটি চালকের এই দৃশ্য দেখতে এলাকার শতাধিক মানুষের ভীড় জমে। ভটভটি চালক সুলতানকে দেখা যায় মাথার পিছনে চুলের সাথে দড়ি বেঁধে দিয়ে ১৩শ কেজি ওজনের ভটভটি টেনে নিয়ে যাচ্ছে। ভটভটির চালকের সীটে বসে এক ব্যক্তি গাড়ীটি শুধু নিয়ন্ত্রন করছে।

সুলতান আলীর মাথার চুল দিয়ে ৫শ মিটার পাকা রাস্তায় ভটভটি টেনে নিয়ে যেতে সময় লেগেছে প্রায় ২০ মিনিট। এই সময়ে শতাধিক উৎসুক মানুষের করতালিতে মুখরিত হয়ে ওঠে এলাকা। ভটভটি চালক সুলতান আলীর বাড়ী ধুনট পৌর এলাকার পূর্বভরনশাহী গ্রামে। তার দরিদ্র পিতা আব্দুল বারিক পেশায় একজন কাঠমিস্ত্রী। দুই ভাইয়ের মধ্যে সুলতান আলীই ছোট। দারিদ্রতার কারনে লেখাপড়ার সুযোগ মেলেনি তার।

তাই ১৫ বছর বয়স থেকেই দরিদ্র পিতার সংসারের হাল ধরতে হয়েছে তাকে। প্রথমে অন্যের গাড়ী চালিয়ে রোজগার করলেও বর্তমানে ঋণ নিয়ে একটি ভটভটির মালিক হয়েছে সুলতান। তাই নিজের গাড়ী চালিয়েই মাসে ১০/১২ হাজার টাকা রোজগার করে সংসার চালাচ্ছে সে।

ভটভটি চালক সুলতান আলী বলেন, ইচ্ছা শক্তি ও মনোবল সঠিক থাকলে সব ইচ্ছাই পুরন করা যায়। তাই দীর্ঘদিন যাবত মাথার চুল দিয়ে ভটভটি টেনে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছিলাম। এঅসাধ্য কাজটি সাধন করতে আমার প্রায় ৬ মাস সময় লেগেছে। তবে এভাবে ভারী গাড়ী টেনে নিয়ে যেতে মাথায় কোন আঘাত লাগে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে সে জানায়, একটু তো ব্যাথা লাগবেই। তবে খুব একটা অসুবিধা হয় না।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন