বগুড়া সংবাদ ডট কম (সারিয়াকান্দি প্রতিনিধি রাহেনূর ইসলাম স্বাধীন): মাল বিতরন করার ১২ঘন্টা অতিবাহিত না হতেই কালো বাজারীদের হাতে সরকারী কৃষক পূর্ণবাসনের বীজ ও সার। গত ২৩ শে এপ্রিল বগুড়ার সারিয়াকান্দি উপজেলায় কৃষি অধিদপ্তরের উদ্দ্যেগে কৃষকদের মাঝে ধানের বীজ ও সার বিতরন করা হয়। একইদিন সন্ধ্যায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সারিয়াকান্দি থানা পুলিশের একটি দল পৌর বাজারের আশরাফ আলীর ভাড়া করা গুদামে সরকারী মাল থাকার সন্দেহে ঘেরাও করে। এরপর নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সহকারী কমিশনার (ভুমি) আব্দুল কাদেরের উপস্থিতিতে গুদামটি খোলা হলে সেখানে কৃষি অধিদপ্তরের বিতরনকৃত ২৮বস্তা সার ও ৪৫ বস্তা ক্রয় নিষিদ্ধ ধানের বীজ পাওয়া যায়। এছাড়াও রাস্তায় ক্রয়কৃত আরও চারটি ভ্যানে ৩২বস্তা সার ও ২০বস্তা বীজ জব্দ করা হয়। অবৈধ মাল ক্রয় করার অপরাধে সারিয়াকান্দি বাজারের সার ব্যাবসায়ী মো. আশরাফ আলী (৬০) কে আটক করে থানা পুলিশ। সে পৌর ১নং ওয়ার্ড হিন্দুকান্দি গ্রামের মৃত: হযরত আলীর পুত্র। এছাড়াও আশরাফ আলীর পুত্র উজ্জল হোসেন (৩০) এবং সোনাতলা উপজেলার কুশেহাটা গ্রামের আব্দুস সামাদের পুত্র সাবিনুর ইসলাম এই ঘটনার সাথে জরিত আছে বলে নিশ্চিত করেছেন থানা কর্তৃপক্ষ। এব্যাপারে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. শাহাদুত জামান বলেন, আমরা সুষ্ঠভাবে কৃষকদের মাঝে মাল বিতরন করেছি, বাহিরে গিয়ে কেউ যদি এই মাল ক্রয়-বিক্রয় করে আমাদের করার কিছু থাকে না। তবে কারও বিরুদ্ধে প্রমান পাওয়া গেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। সারিয়কান্দি থানা পরিদর্শক (তদন্ত) মো. এনায়েতুর রহমান জানান, ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনে ৭৪ ধারা অনুযায়ী অপরাধী ৩জনের বিরুদ্ধে উপজেলা কৃষি সম্প্রসারন অফিসার আব্দুল হালিম বাদী হয়ে একটি মামলা করেছেন যাহার মামলা নং-১৭।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন